myUpchar प्लस+ सदस्य बनें और करें पूरे परिवार के स्वास्थ्य खर्च पर भारी बचत,केवल Rs 99 में -

সারাংশ

মস্তিষ্কের কোষের অস্বাভাবিক বৃদ্ধিকে ব্রেনে টিউমার বলা হয়। টিউমার ক্ষতিকর নাও (বিনাইন) হতে পারে বা ক্যান্সার প্রবণ (ম্যালিগন্যান্ট) হতে পারে। মস্তিষ্কের ভিতরে যে ব্রেন টিউমার গঠিত হয় তাকে প্রাথমিক বা প্রাইমারি ব্রেন টিউমার বলা হয়। শরীরের অন্যত্র যদি এমন টিউমার গঠিত হয় যার মূলে আছে ক্যান্সার তা মস্তিষ্কে ছড়িয়ে গেলে তখন তাকে সেকেন্ডারি বা মেটাস্ট্যাটিক ব্রেন টিউমার বলা হয়। ব্রেন টিউমার-এর চিহ্ন এবং উপসর্গের পিছনে বিভিন্ন কারণ থাকতে পারে যেমন টিউমারের আয়তন, টিউমার আকারে বড় হয়ে ওঠার হার এবং কোন এলাকায় টিউমারটি হয়েছে সেই অবস্থান। কিছু আদি এবং সাধারণ উপসর্গ হল মাথাধরার রকমফের, মাঝেমাঝেই এবং অসহ্য মাথা যন্ত্রণা, কথা বলার সমস্যা, এবং ভারসাম্য বজায় রাখা কঠিন হয়ে পড়া। ব্রেন টিউমার-এর চিকিৎসা নির্ভর করে সেটি কোন ধরনের টিউমার এবং তার আকার এবং তার অবস্থানের এলাকার ওপর।

  1. ব্রেন টিউমার কি - What is Brain Tumour in Bengali
  2. ব্রেন টিউমার এর উপসর্গ - Symptoms of Brain Tumour in Bengali
  3. ব্রেন টিউমার এর চিকিৎসা - Treatment of Brain Tumour in Bengali
  4. ব্রেন টিউমার জন্য ঔষধ
  5. ব্রেন টিউমার ৰ ডক্তৰ

ব্রেন টিউমার কি - What is Brain Tumour in Bengali

মস্তিষ্কের কোষগুলির অস্বাভাবিক বৃদ্ধিকেই ব্রেন টিউমার বলা হয়ে থাকে। এখনও পর্যন্ত পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি ঠিক কী কারণে মস্তিষ্কের কোষগুলির এইরকম অনিয়ন্ত্রিত বৃদ্ধি হয়। তবে কুড়ি জনের মধ্যে একজনের ক্ষেত্রে জিনগত কারণে ব্রেন টিউমার-এর ঝুঁকি বেশি থাকে বলে ভাবা হয়ে থাকে।

মস্তিষ্কের কোন অংশে গঠিত হয়েছে, কী ধরনের কোশ থেকে তাদের জন্ম হয়েছে, এবং কত তাড়াতাড়ি সেগুলি বেড়ে উঠেছে এবং ছড়িয়ে পড়েছে, তার ওপর ভিত্তি করে 130টি ভিন্ন ধরনের প্রাথমিক বা প্রাইমারি ব্রেন এবং মেরুদণ্ডের টিউমারের নামকরণ এবং শ্রেণি বিভাজন করা হয়ে থাকে। ম্যালিগন্যান্ট বা ক্যান্সারপ্রবণ ব্রেন টিউমার বিরল (প্রাপ্তবয়স্কদের সমস্ত রকম ক্যান্সারের মধ্যে বড়জোর 2% )। বহু ব্রেন টিউমার থেকে প্রাণহানির আশঙ্কা থাকে, অন্যান্য ক্যান্সারে যত দিন বেঁচে থাকার সম্ভাবনা থাকে এ ক্ষেত্রে তার থেকে অনেক কম বছর বাঁচবার সম্ভাবনা। কিন্তু আদতে ব্রেন টিউমার কী ধরনের অসুখ, এবং কীভাবে তা গঠিত হয়? ব্রেন টিউমার-এর উৎপত্তির কারণ কী? এবং কীভাবে তার নিরাময় হতে পারে? ব্রেন টিউমার সম্পর্কে নিশদে জানতে হলে আরও পড়ুন।     

ব্রেন টিউমার এর উপসর্গ - Symptoms of Brain Tumour in Bengali

টিউমার-এর আকার এবং তার অবস্থানের এলাকার ওপর ব্রেন টিউমার-এর উপসর্গের পরিবর্তন হয়। বিভিন্ন শারীরিক কাজকর্মের জন্য মস্তিষ্কের বিভিন্ন অংশ দায়ী বলে যে এলাকায় ব্রেন টিউমার গঠিত হয়েছে সেই মত শারীরিক উপসর্গ দেখা দেবে। ব্রেন টিউমার-এর কতকগুলি সাধারণ উপসর্গ এখানে দেওয়া হল:

  • মাথাধরা
    ব্রেন টিউমার আক্রান্ত রোগীদের 20% -এর মধ্যে প্রাথমিক উপসর্গ হচ্ছে মাথাধরা। ব্রেন টিউমার আক্রান্ত রোগীদের অনিয়মিতভাবে মাথা ধরবে, খুব সকালে বেশি খারাপ থাকবে, তারপর বমি হতে পারে বা মাথার খুলির নিচে চাপ বাড়ার মত কারণ ঘটলে যেমন কাশি হলে বা শারীরিক অবস্থান পাল্টালে, মাথাধরা বেড়ে যাবে।
     
  • তড়কা
    ব্রেন টিউমার আক্রান্ত রোগীদের কারোর কারোর ক্ষেত্রে প্রাথমিক উপসর্গ হতে পারে খিঁচুনি। মস্তিষ্কে অস্বাভাবিক বৈদ্যুতিক তরঙ্গের জন্য খিঁচুনি হতে পারে। কোনও ব্রেন টিউমার আক্রান্ত রোগী খিচুঁনির সঙ্গে হঠাৎ অচেতন হয়ে যেতে পারেন, সামগ্রিক শারীরিক প্রক্রিয়া বন্ধ বা অল্প সময়ের জন্য (30 সেকেন্ড) শ্বাস বন্ধ হয়ে যেতে পারে যে কারণে ত্বকের রং নীলাভ হয়ে বিবর্ণ দেখাতে পারে।
     
  • স্মৃতিভ্রংশ
    ব্রেন টিউমার হলে রোগীর স্মৃতিভ্রংশের সমস্যা দেখা দিতে পারে। তেজস্ক্রিয় বিকিরণ বা অস্ত্রোপচারের ফলেও স্মৃতিভ্রংশ হতে পারে। ক্লান্তির জন্য ব্রেন টিউমার আক্রান্ত রোগীদের স্মৃতিভ্রংশের সমস্যা আরও বাড়তে পারে। দীর্ঘস্থায়ী স্মৃতির চেয়ে স্বল্পস্থায়ী স্মৃতিভ্রংশের (যেমন ডায়াল করার সময় ফোন নম্বর ভুলে যাওয়া) সমস্যা বেশি হয়। (বিশদে পড়ুন: স্মৃতিভ্রংশের কারণসমূহ)
     
  • অবসাদ
    গবেষকরা জানিয়েছেন, ব্রেন টিউমার আক্রান্ত 4 জন রোগীর মধ্যে 1 জন খুব বেশিরকম অবসাদে ভুগে থাকেন। রোগী এবং তাঁদের প্রিয়জন, উভয়েরাই সাধারণত অবসাদের শিকার হন। অবসাদের উপসর্গগুলির মধ্যে আছে এবং দেখা যায় এমন সব বিষয়ে রোগীর আনন্দ/আগ্রহে ভাটা যেগুলি অতীতে তার কাছে মজার বিষয় ছিল, নিদ্রাহীনতা (ঘুমের অভাব), চাঙা বোধ না করা, নিজেকে অসফল মনে করা, অবস্থা ব্যতিরেকে বিষণ্ণতা, এমনকি আত্মহননের চিন্তা।.
     
  • ব্যক্তিত্বের পরিবর্তন এবং মেজাজের খামখেয়ালিপনা
    ব্রেন টিউমার-এর কারণে ব্যক্তিত্বের পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে। আগে যে মানুষ অনুপ্রাণিত থাকতেন বা কাজে একনিষ্ঠ থাকতেন তাঁরা নিজেদের মধ্যে গুটিয়ে যেতে পারেন বা নিষ্ক্রিয় হয়ে যেতে পারেন। একটি মানুষের ভাবনা-চিন্তা এবং কর্মকাণ্ডকেও প্রভাবিত করতে পারে টিউমার। আবার, কেমোথেরাপি বা তেজস্ক্রিয় বিকিরণজাতীয় চিকিৎসার জন্য মস্তিষ্কের কর্মকাণ্ড আরও বিঘ্নিত হতে পারে। ব্রেন টিউমার আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে খুব সাধারণ একটি উপসর্গ হল মেজাজের খামখেয়ালিপনা।.
     
  • জ্ঞান সম্বন্ধীয় কার্যপ্রণালী  
    ব্রেন টিউমার আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে একাগ্রতা এবং মনোযোগ দেওয়ার ক্ষমতা, সংযোগ রক্ষা, ভাষার আদান-প্রদানের ক্ষেত্রে পরিবর্তন দেখা যায়, এবং বোধ-বুদ্ধির ক্ষমতা হ্রাস পায়। মস্তিষ্কের বিভিন্ন লোব-এ (খোপে) অর্থাৎ পেরিটাল, ফ্রন্টাল বা টেম্পোরাল লোবে টিউমার হলে মানুষের ব্যবহারকে প্রভাবিত করে।
     
  • ফোকাল বা স্থানীয় উপসর্গ
    মস্তিষ্কের শুধুমাত্র একটি বিশেষ অংশ প্রভাবিত হলে যেসব উপসর্গ দেখা দেয় তাকে ফোকাল বা স্থানীয় উপসর্গ বলা হয়। এই উপসর্গগুলি টিউমার কোন অংশে হয়েছে তা চিহ্নিত করতে সাহায্য করে। স্থানীয় উপসর্গের মধ্যে আছে একই ছবি পাশাপাশি দুটি করে দেখা, চিন্তা এলোমেলো হয়ে যাওয়া, দুর্বলতা, শরীরে ঝিনঝিন বা অসাড় অনুভূতি। কোনও টিউমার হয়ে থাকলে এবং মস্তিষ্কে যদি তার অবস্থান হয় তাহলে বাহ্যত এই উপসর্গগুলি দেখা যায়।
     
  • ব্যাপক প্রভাব বা ম্যাস ইফেক্ট
    মাথার খুলির ঠাসা এলাকায় টিউমার বাড়তে শুরু করলে টিউমারটি তার চারপাশের সুস্থ টিস্যুর ওপর চাপ দিতে শুরু করে, আর তার ফলে যে প্রভাব পড়ে তাকে ম্যাস ইফেক্ট বা  ব্যাপক প্রভাব বলা হয়। এই ম্যাস ইফেক্ট বা  ব্যাপক প্রভাবের ফলে  ব্যবহারিক পরিবর্তন দেখা যায় যেমন তন্দ্রাচ্ছন্নভাব, বমি, এবং মাথাধরা

ব্রেন টিউমার এর চিকিৎসা - Treatment of Brain Tumour in Bengali

ব্রেন টিউমার-এর চিকিৎসা কয়েকটি বিষয়ের ওপর নির্ভর করে, যেমন টিউমারের অবস্থান, আকার, এবং আকার, সার্বিকভাবে রোগী/ রোগীনির অবস্থা এবং তাঁর পছন্দের চিকিৎসা। নিচে  ব্রেন টিউমার আক্রান্ত রোগীদের কিছু চিকিৎসা প্রক্রিয়ার কথা লেখা হল।     

  • অস্ত্রোপচার
    যদি দেখা যায় যে ব্রেন টিউমারটি এমন জায়গায় অবস্থিত যেখানে অস্ত্রোপচার করা সহজ, তাহলে চিকিৎসক টিউমারটি যতটা সম্ভব বাদ দিয়ে দেবেন। কোনও কোনও সময়ে টিউমারটি ছোট হয় এবং এটিকে মস্তিষ্কের অন্যান্য টিস্যু থেকে সরিয়ে ফেলা সহজ হয়; কাজেই অস্ত্রোপচার করে সেটিকে বাদ দেওয়া সহজ হয়। টিউমারটির যতটা অংশ বাদ দেওয়া সম্ভব হল তার ওপর ব্রেন টিউমার-এর লক্ষণ এবং উপসর্গ কমা নির্ভর করে। অস্ত্রোপচারের পর রক্তক্ষরণ বা সংক্রমণ বা কানের সঙ্গে টিউমারের সংযোগ থাকলে কানে কম শুনতে পাওয়ার মত অন্যান্য ঝুঁকির আশঙ্কা থাকে।
     
  • বিকিরণ (রেডিয়েশন) থেরাপি
    টিউমার কোষ বিনষ্ট করতে বিকিরণ (রেডিয়েশন) থেরাপিতে উচচ ক্ষমতাসম্পন্ন আলোক রশ্মি যেমন এক্স রে বা প্রোটোন ব্যবহার করা হয়। একটি যন্ত্রকে হয় রোগীর শরীরের বাইরে রাখা হয় যাতে বাইরে থেকে আলোকরশ্মির বিকিরণ হয় বা রোগীর শরীরের অভ্যন্তরে ব্রেন টিউমারের (ব্র‌্যাকিথেরাপি) পাশে রাখা হয়। টিউমারগুলি যখন মস্তিষ্কের সংবেদনশীল এলাকার কাছে থাকে তখন প্রোটোন থেরাপি, যা বিকিরণের এক নতুন সংস্করণ, বিকিরণের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার বিরূপ প্রভাব কমাতে পারে। সমগ্র মস্তিষ্কে বিকিরণের সাহায্যে ক্যান্সারের চিকিৎসা করা হয়, যা সারা শরীরের অন্য অংশ থেকে ছড়িয়েছে। ক্যান্সারের ফলে যখন একাধিক ব্রেন টিউমার গঠিত হয় তখনও এটি ব্যবহৃত হয়। রোগীর শরীরে কী ধরনের এবং কত ডোজে বিকিরণ দেওয়া হল, তার ওপর বিকিরণের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নির্ভর করে।
     
  • রেডিওসার্জারি
     রেডিওসার্জারি পদ্ধতিতে ক্ষুদ্র এলাকায় টিউমার কোষ বিনষ্ট করার জন্য একাধিক বিকিরণ আলোকরশ্মি ব্যবহার করা হয়। ব্রেন টিউমারের চিকিৎসায় ব্যবহৃত রেডিওসার্জারিতে অন্যতম প্রযুক্তি হল গামা নাইফ বা লিনিয়র অ্যাক্সিলারেটর। এই সার্জারিতে একদিনেই চিকিৎসা সম্পন্ন হয় এবং অধিকাংশ রোগী সেদিনই বাড়ি চলে যান।
     
  • কেমোথেরাপি
    কেমোথেরাপি হচ্ছে ক্যান্সারের অন্যতম চিকিৎসা যেখানে টিউমার কোষ বিনষ্ট করার জন্য মুখে খাওয়ার বড়ি বা পিল দেওয়া হয় বা ইঞ্জেকশন প্রয়োগ করা হয়। ব্রেন টিউমারের ধরন এবং অবস্থা বুঝে চিকিৎসায় কেমোথেরাপি সুপারিশ করা হয়। ব্রেন টিউমার নিরাময়ে কেমোথেরাপিতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয় টেমোজোলোমাইড, যা বড়ি বা পিল হিসাবে দেওয়া হয়। ব্রেন টিউমারের চিকিৎসায় টিউমারের দরুন বা অন্য চিকিৎসা চলার কারণে ফুলে গিয়ে থাকলে তা কমাবার জন্য কর্টিকোস্টেরয়েড ব্যবহার করা হয়। ওষুধ এবং পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নির্ভর করে কেমোথেরাপিতে ব্যবহৃত কী ওষুধ  কত ডোজে দেওয়া হল তার ওপর।
     
  • নির্দিষ্ট লক্ষে (টার্গেটেড) ড্রাগ থেরাপি
    ক্যান্সার কোষগুলির মধ্যে নির্দিষ্ট অস্বাভাকিতার দিকে নজর রেখে এই চিকিৎসা করা হয়। এই থেরাপিতে যে ওষুধ ব্যবহার হয় তা ক্যান্সার কোষগুলিকে বিনষ্ট করে। বহুবিধ ওষুধ দিয়ে এখন পরীক্ষা চালানো হচ্ছে এবং সেগুলির উন্নতি ঘটানো হচ্ছে।
Dr. Ashok Vaid

Dr. Ashok Vaid

ऑन्कोलॉजी

Dr. Susovan Banerjee

Dr. Susovan Banerjee

ऑन्कोलॉजी

Dr. Rajeev Agarwal

Dr. Rajeev Agarwal

ऑन्कोलॉजी

ব্রেন টিউমার জন্য ঔষধ

ব্রেন টিউমার के लिए बहुत दवाइयां उपलब्ध हैं। नीचे यह सारी दवाइयां दी गयी हैं। लेकिन ध्यान रहे कि डॉक्टर से सलाह किये बिना आप कृपया कोई भी दवाई न लें। बिना डॉक्टर की सलाह से दवाई लेने से आपकी सेहत को गंभीर नुक्सान हो सकता है।

Medicine Name
Evertor खरीदें
Dexoren S खरीदें
Gliotem खरीदें
Gliozolamide खरीदें
Glioz खरीदें
Low Dex खरीदें
Nublast खरीदें
Temcad खरीदें
Temcure खरीदें
Temodal खरीदें
Temokem खरीदें
Dexacort खरीदें
Temonat खरीदें
Dexacort (Klar Sheen) खरीदें
4 Quin Dx खरीदें
Temoside खरीदें
Solodex खरीदें
Apdrops Dm खरीदें
Tariflox D खरीदें
Glistroma खरीदें
Lupidexa C खरीदें
Dexcin M खरीदें
Imozide खरीदें
Ocugate Dx खरीदें

আপনার অথবা আপনার পরিবারে কারোর কি এই রোগ আছে? দয়া করে একটা সমীক্ষা করুন এবং অন্যদের সাহায্য করুন।

References

  1. MedlinePlus Medical Encyclopedia: US National Library of Medicine; Brain Tumors
  2. McKinney PA. Brain tumours: incidence, survival, and aetiology. J Neurol Neurosurg Psychiatry. 2004 Jun;75(suppl 2):ii12-7. PMID: 15146034
  3. Accelerate Brain Cancer Cure [Internet] Washington DC; Tumor Grades and Types
  4. American Association of Neurological Surgeons. [Internet] United States; Classification of Brain Tumors
  5. American Society of Clinical Oncology [Internet] Virginia, United States; Brain Tumor: Grades and Prognostic Factors
  6. American Brain Tumor Association [Internet] Chicago; Signs & Symptoms
  7. American Cancer Society [Internet] Atlanta, Georgia, U.S; What Causes Brain and Spinal Cord Tumors in Adults?.
  8. Accelerate Brain Cancer Cure [Internet] Washington DC; Staying Healthy
और पढ़ें ...
ऐप पर पढ़ें