myUpchar प्लस+ के साथ पूरेे परिवार के हेल्थ खर्च पर भारी बचत

সোডিয়ামের অভাব কি?

সোডিয়ামের অভাব, যা হাইপোমেট্রামিয়া নামেও পরিচিত, রক্তে সোডিয়ামের মাত্রাল্পতাকে বোঝায়। সোডিয়ামের মাত্রা যখন 135-145 মিলিইকুইভ্যালেন্টস/লিটার-এর নিচে নেমে যায় তখন এটি হয়। সোডিয়াম বাহ্যিক তরল পদার্থের মধ্যে অন্যতম প্রধান ও অপরিহার্য ইলেক্ট্রোলাইট বা খনিজ এবং তরল-ইলেক্ট্রোলাইট ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।

এর প্রধান লক্ষণ ও উপসর্গগুলি কি কি?

সোডিয়ামের ঘাটতি মৃদু হলে উপসর্গ অস্পষ্টভাবে দেখা দেয়। অবস্থার তীব্রতা যত বাড়তে থাকে, নিম্নলিখিত উপসর্গগুলি দেখা দেয়:

এর প্রধান কারণ কি?

দেখা গিয়েছে, শরীরে প্রচুর পরিমাণ জলের উপস্থিতি সোডিয়ামের মাত্রা কমিয়ে দেয়। হয় শুধু সোডিয়াম বেরিয়ে যাওয়া আর নাহলে জলের সঙ্গে বেরিয়ে যাওয়া শরীরে সোডিয়ামের স্বল্প মাত্রার জন্য দায়ী হতে পারে।

অন্যান্য কিছু কারণ:

  • কিডনির অপর্যাপ্ত কার্যকারিতা।
  • শরীরে তরলের বৃদ্ধি।
  • সোডিয়ামের ঘাটতি হয় এমন ওষুধের ব্যবহার।
  • মানসিক অবসাদ বা ব্যথার ওষুধের কারণে মুত্রত্যাগের পরিমাণ বৃদ্ধি।
  • অত্যধিক বমি ও পাতলা পায়খানা।
  • তেষ্টা বৃদ্ধি।

এটি কিভাবে নির্ণয় এবং চিকিৎসা করা হয়?

শরীরের তরল পদার্থে সোডিয়ামের মাত্রা পর্যবেক্ষণের জন্য চিকিৎসক কিছু টেস্ট করাতে দিতে পারেন। প্রাথমিক মূল্যায়ন হিসেবে শারীরিক পরীক্ষা করা হবে। অন্যান্য অবস্থা খুঁজে বের করতে উপসর্গগুলি খতিয়ে দেখা হয়। রক্ত ও মূত্রের মতো শরীরের তরল বিশ্লেষণ করা হয় সোডিয়ামের মাত্রা যাচাইয়ের জন্য। নিম্নলিখিত টেস্টগুলি করা হতে পারে

  • সিরাম সোডিয়াম।
  • অসমোলালিটি টেস্ট।
  • মূত্রে সোডিয়ামের পরিমাণ যাচাই।
  • ইউরিন অসমোলালিটি।

সাধারণত, অবস্থার কারণ ও তীব্রতার ওপর ভিত্তি করে চিকিৎসা করা হয়। প্রধানত চিকিৎসার মধ্যে রয়েছে:

  • শিরার মধ্য দিয়ে তরল প্রবেশ করানো।
  • উপসর্গ উপশমে ওষুধ প্রয়োগ।
  • জলপানের পরিমাণ কমানো।

কিছু ওষুধ রয়েছে যা সোডিয়ামের মাত্রা বৃদ্ধি করে, কিছু সেগুলি গ্রহণের সময় সতর্কতা অবলম্বন করা দরকার। অন্যান্য পদ্ধতির মধ্যে রয়েছে সোডিয়াম ও লবণের মাত্রা ঠিক করতে ইলেক্ট্রোলাইট পান করা। যদি কোনও ক্ষেত্রে কিডনি বিকল হয়ে যায়, তাহলে অতিরিক্ত জল বের করতে ডায়ালেসিস উপযোগী হতে পারে।

সোডিয়ামের ঘাটতি সংশোধন সম্ভব এবং এটি দীর্ঘস্থায়ী অবস্থা নয়, ঘাটতি পূরণ করলে আপনার গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলি এক্ষেত্রে কোনওভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয় না।

  1. সোডিয়ামের অভাব জন্য ঔষধ
  2. সোডিয়ামের অভাব জন্য ডাক্তার
Dr. B.P Yadav

Dr. B.P Yadav

एंडोक्राइन ग्रंथियों और होर्मोनेस सम्बन्धी विज्ञान

Dr. Vineet Saboo

Dr. Vineet Saboo

एंडोक्राइन ग्रंथियों और होर्मोनेस सम्बन्धी विज्ञान

Dr. JITENDRA GUPTA

Dr. JITENDRA GUPTA

एंडोक्राइन ग्रंथियों और होर्मोनेस सम्बन्धी विज्ञान

সোডিয়ামের অভাব জন্য ঔষধ

সোডিয়ামের অভাব के लिए बहुत दवाइयां उपलब्ध हैं। नीचे यह सारी दवाइयां दी गयी हैं। लेकिन ध्यान रहे कि डॉक्टर से सलाह किये बिना आप कृपया कोई भी दवाई न लें। बिना डॉक्टर की सलाह से दवाई लेने से आपकी सेहत को गंभीर नुक्सान हो सकता है।

Medicine NamePack SizePrice (Rs.)
RenolenRenolen Eye Drop49.1
HyprosolHyprosol 0.490 W/V/2 W/V Prefilled Syringe110.0
HysolHysol Eye Drop45.0
D.N.SD.N.S 5%/0.45% Infusion19.61
Dns (Baxter)Dns 5 G/0.45 G Infusion30.22
Dns (Parenteral Drug)Dns 5%W/V/0.9%W/V Infusion25.0
Dns (Denis)Dns Infusion45.0
GrelyteGrelyte Solution32.5
Sodium Chloride (Albert)Sodium Chloride Solution29.2
TnaTna Peri Infusion1837.5
Leclyte G PlLeclyte G Pl Solution44.48
CatlonCatlon Drop62.0
SterofundinSterofundin Iso Infusion225.0
N.S (Parenteral)N.S Infusion23.12
RallidexRallidex Infusion434.2
Dextrose With Normal SalineDextrose With Normal Saline 5% Infusion22.0
Dns (Venus)Dns Solution45.0
Dns Water (Albert)Dns Water 0.9% W/V Infusion29.0

আপনার অথবা আপনার পরিবারে কারোর কি এই রোগ আছে? দয়া করে একটা সমীক্ষা করুন এবং অন্যদের সাহায্য করুন।

और पढ़ें ...