যক্ষ্মা - Tuberculosis (TB) in Bengali

Dr. Ajay Mohan (AIIMS)MBBS

December 27, 2018

March 06, 2020

যক্ষ্মা
যক্ষ্মা

সারাংশ

টিউবারকিউলোসিস বা যক্ষ্মারোগ (টিবি) হল মাইকোব্যাক্টেরিয়াম টিউবারকিউলোসিস দ্বারা ঘটিত একটা ছোঁয়াচে রোগ। বিশ্ব জুড়ে  প্রধান স্বাস্থ্যসংক্রান্ত উদ্বেগ বা দুশ্চিন্তাগুলির এটা হল অন্যতম, বিশেষতঃ উন্নয়নশীল দেশগুলিতে। একটা মোটামুটি হিসাব করা হয়েছে যে বিশ্বের জনসংখ্যার এক-তৃতীয়াংশের মধ্যে সুপ্ত (ভিতরে লুকানো) যক্ষ্মারোগ আছে। এটা একটা ছোঁয়াচে রোগ এবং একজন সংক্রামিত ব্যক্তির সঙ্গে সংস্পর্শের মাধ্যমে ছড়ায়। দেহে প্রবেশ করার পর, টিবি প্যাথোজেন (জীবাণু বা ব্যাক্টেরিয়া যা রোগ ঘটায়) সাধারণতঃ ফুসফুসে আশ্রয় নেয়। প্যাথোজেন কাশি, রক্তমাখা শ্লেষ্মা, জ্বর, এবং ওজন কমানো ঘটিয়ে ফুসফুসকে বিরূপভাবে আক্রমণ করে। কখনও কখনও এটা হাড়, মেনিঞ্জিস (মস্তিষ্কের আবরণ), কিডনিগুলি, এবং ইন্টেস্টিন বা অন্ত্রগুলিকেও আক্রমণ করে। টিবি সাধারণভাবে অ্যান্টি কক ড্রাগস হিসাবে পরিচিত ওষুধগুলির সাহায্যে চিকিৎসা করা হয় এবং রোগটার ধরণ এবং তীব্রতার উপর নির্ভর করে ছ’মাস থেকে তিন বছর পর্যন্ত সাধারণতঃ চিকিৎসা স্থায়ী হয়। যদি কোনও ব্যক্তি সময়মত সঠিক চিকিৎসা পান, তাহলে চিকিৎসার সাফল্য প্রায় একশো শতাংশের কাছাকাছি। কিন্তু কখনও কখনও, টিবি ভালো হয়ে আবার ফিরে আক্রমণ করতে পারে কিংবা চরম ক্ষেত্রগুলিতে, মৃত্যু ঘটাতে পারে।

যক্ষ্মা (টিবি রোগ) কি - What is TB in Bengali

টিউবারকিউলোসিস (টিবি), ককের(Koch’s) সংক্রমণ হিসাবেও পরিচিত, হচ্ছে মাইকোব্যাক্টেরিয়াম টিউবারকিউলোসিস দ্বারা ঘটিত একটা সংক্রামক ছোঁয়াচে রোগ। রোগটা সচরাচর ফুসফুসগুলোকে আক্রমণ করে প্রদাহ (ফোলা) সৃষ্টি করে এবং ধীরে ধীরে সেগুলোর ক্ষতি করে। কখনও কখনও টিবি মস্তিষ্ক, মেরুদণ্ড, কিংবা কখনও কখনও কিডনিগুলো পর্যন্ত ছড়ায়। সংক্রমণ-সম্পর্কিত মৃত্যুর এটা একটা প্রধান কারণ এবং বিশ্বব্যাপী মৃত্যুহারের যেকোন-কারণের মধ্যে শীর্ষস্থানীয় 10টি তালিকায় স্থান করে নিয়েছে।      

যক্ষ্মা (টিবি রোগ) এর উপসর্গ - Symptoms of Tuberculosis in Bengali

বিশ্বব্যাপী, বেশির ভাগ মানুষ মাইকোব্যাক্টেরিয়াম টিউবারকিউলোসিস-এর প্রভাবের আওতায় আছেন এবং তাঁদের মধ্যে অনেকে এই রোগজীবাণু ধারণ করে আছেন। একটা নিষ্ক্রিয় অথবা সুপ্ত রোগ খুব কমই কোনও উপসর্গ সৃষ্টি করে, যাই হোক, এটা শুধুমাত্র যক্ষ্মাজীবাণু থেকে গৃহীত পদার্থ থেকে (টিউবারকিউলিন) ত্বক পরীক্ষায় (মান্টু টেস্ট) একটা সদর্থক প্রতিক্রিয়া দেখাতে পারে। এটা আগে থেকে বলা যায়না যে এই সুপ্ত অবস্থার সমস্যা কতকাল স্থায়ী থাকবে, কিংবা এটা একটা সক্রিয় রোগে প্রকাশ পাবে।     

একটা সক্রিয় রোগে, অনেক ধরণের উপসর্গ দেখা যেতে পারে যা রোগটার তীব্রতা স্থির করতে সাহায্য করে। সাধারণতঃ, ফুসফুসগুলি জড়িত থাকে এবং টিবির লক্ষণ এবং উপসর্গ দেখায়। বিভিন্ন ধরণের টিবির উপসর্গগুলি হলঃ 

ফুসফুসগত যক্ষ্মারোগ (টিউবারকিউলোসিস) 

  • একটা ক্রনিক বা দীর্ঘস্থায়ী কাশি (3 সপ্তাহের বেশি সময় ধরে স্থায়ী কোনও কাশি)।
  • হিমপ্টিসিস (রক্ত-মাখা থুতু)।
  • শ্বাসপ্রশ্বাসে কষ্ট।
  • জ্বর (শুরুতে অল্প-মাত্রার এবং অবশেষে, উচ্চ-মাত্রার)।
  • রাতের বেলায় ঘাম।
  • ওজন কমা।
  • অবসাদ
  • খিদে কম হওয়া।

টিবি রোগের জীবাণু অন্যান্য প্রত্যঙ্গগুলি যেমন লিম্ফ নোডস (দেহের লসিকা গ্রন্থি যেখানে গুরুত্বপূর্ণ বর্ণহীন সাদা রস থাকে), হাড়, মস্তিষ্ক (মেনিঞ্জিস), অন্ত্রগুলি, এবং এমনকি কিডনিগুলিকেও আক্রমণ করে বলে জানা যায়; যখন রোগটা ফুসফুস ছাড়া অন্য প্রত্যঙ্গগুলিকে আক্রমণ করে তাকে বলে এক্সট্রাপালমোনারি টিউবারকিউলোসিস (ফুসফুসের বাইরে অবস্থিত বা ঘটা যক্ষ্মারোগ)। ফুসফুসের বাইরে ঘটা যক্ষ্মারোগের উপসর্গগুলির মধ্যে আছেঃ    

যক্ষ্মা (টিবি রোগ) এর চিকিৎসা - Treatment of TB in Bengali

যক্ষ্মারোগ হচ্ছে সর্বাধিক গবেষণাকৃত রোগ এবং চিকিৎসার জন্য একটা ব্যাপক বৈচিত্র্যের ওষুধ সহজলভ্য। এই ওষুধগুলিকে ব্যাক্টেরিসাইডাল (যে ওষুধগুলি জীবাণুগুলিকে মারে) এবং ব্যাক্টেরিওস্ট্যাটিক ড্রাগস (জীবাণুগুলির বৃদ্ধি বন্ধ করে, যাতে আমাদের রোগ-প্রতিরোধক কোষগুলি এগুলোকে মারতে পারে) হিসাবে শ্রেণীবিভক্ত করা হয়। সংক্রমণের ধরণ এবং সংক্রমণের তীব্রতার দ্বারা ওষুধের নির্বাচন, ডোজেজ (মাত্রা), এবং চিকিৎসার স্থায়িত্বকাল স্থির করা হয়।    

  • সুপ্ত সংক্রমণ
    এটা সাধারণতঃ একটা একক ওষুধের সাহায্যে চিকিৎসা করা হয়, যা ছ’মাস ধরে নেওয়া হয়।  
  • সক্রিয় ফুসফুসগত সংক্রমণ
    সাধারণতঃ, ফুসফুস-সংক্রান্ত টিবি চিকিৎসা করার জন্য একটা সংমিশ্রণ থেরাপি প্রযুক্ত হয় এবং চিকিৎসা ছয় থেকে নয় মাস ধরে চলে।
  • ফুসফুসের বাইরের সংক্রমণ
    এটাকে রোগটার অপেক্ষাকৃত বেশি তীব্র ধরণ হিসাবে গণ্য করা হয় এবং এখানে, প্রথম 6-9 মাসের জন্য বহুবিধ (ওষুধের) সংমিশ্রণ ব্যবহার করা হয়, যার পরবর্তী তিনমাসের জন্য একটা একক ওষুধের অল্পস্থায়ী কোর্স অনুসরণ করা হয়। 
  • ওষুধ-প্রতিরোধক সংক্রমণ
    একটা ওষুধ-প্রতিরোধক সংক্রমণে, জীবাণুগুলি ওষুধগুলির প্রভাবের পাল্টা বিরোধ করার জন্য কিছু কৌশল গড়ে তোলে এবং সেগুলির প্রতিরোধক হয়ে দাঁড়ায়। সেজন্য প্রথমে, কোন ওষুধ জীবাণুগুলিকে মারার জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে সেটা খুঁজে বার করার জন্য সংবেদনশীলতার পরীক্ষা সম্পাদন করা হয় এবং সেই ওষুধ, অন্যান্য ওষুধগুলির সাথে, একটা সংমিশ্রণ থেরাপি হিসাবে দেওয়া হয় এবং প্রতিরোধের ধরণের উপর নির্ভর করে অর্থাৎ বহুবিধ-ওষুধ প্রতিরোধ (এমডিআর-টিবি) অথবা চরম ওষুধ প্রতিরোধ (এক্সডিআর-টিবি), থেরাপি বা চিকিৎসা এবং থেরাপির স্থায়িত্বকাল নির্ণয় করা হয়, যা 18 মাস থেকে 3 বৎসর পর্যন্ত স্থায়ী  হয়।   

 যক্ষ্মারোগ চিকিৎসার জন্য সাধারণভাবে যে ওষুধগুলি ব্যবহৃত হয় সেগুলির মধ্যে আছেঃ

  • রিফ্যাম্পিন
  • আইসোনায়াজিড
  • এথামবিউটল
  • পিরাজিনামাইড

কোনও ওষুধ-প্রতিরোধক টিবির ক্ষেত্রে, ফ্লুরোকুইনোলোনস এবং অ্যামিকেসিন, ক্যানামাইসিন অথবা ক্যাপ্রিওমাইসিন-এর মত শরীরের মধ্যে প্রয়োগ করার যোগ্য (ইঞ্জেক্টেব্‌ল) ওষুধগুলি ব্যবহার করা হয়। এই ওষুধগুলি মৌখিক ওষুধগুলির সাথে মিশিয়ে দেওয়া হয়। 

যেহেতু টিবি চিকিৎসা একটা লম্বা সময় ধরে চলে এবং ব্যবহৃত ওষুধগুলির অপেক্ষাকৃত একটা উচ্চতর শক্তি আছে, এই ওষুধগুলির গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে বলে জানা যায়। এগুলির বেশির ভাগ লিভারের (যকৃৎ) জন্য বিষাক্ত। যদি আপনি নিম্নরূপ উপসর্গগুলির কোন একটা অনুভব করেন, অবিলম্বে আপনার ডাক্তারের কাছে এটা জানানো জরুরিঃ 

  • সারাক্ষণ বমি বমি ভাব এবং বমি।
  • চামড়ার হলুদ বিবর্ণতা (জন্ডিস)। 
  • খিদে না হওয়া।
  • অবিরাম জ্বর।

জীবনধারা সামলানো

একজন মানুষের স্বভাবিক জীবনধারার উপরে যক্ষ্মারোগের একটা গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব থাকে, যেহেতু টিবির চিকিৎসা জটিল এবং সেই সাথে দীর্ঘস্থায়ী। মানিয়ে চলার সবচেয়ে ভাল উপায় হল চিকিৎসায় বিশ্বস্তভাবে লেগে থাকা এবং আপনার ডাক্তারের সাথে নিয়মিত ফলো-আপ। কখনও কখনও, কারোর একজন মনোবিদের সাহায্য দরকার হতে পারে, কারণ মানসিক অসুখ যেমন নৈরাশ্য, উদ্বেগ, মানসিক চাপ, মনমরাভাব কিংবা এমনকি অস্বীকারের মত সম্ভাবনাগুলি মাথাচাড়া দিতে পারে। যক্ষ্মারোগ সামাল দেওয়ায় সঠিক পুষ্টি এবং ইতিবাচক মানিয়ে চলার কৌশলগুলি গুরুত্বপূর্ণ।          

এগুলো ছাড়া, জীবনধারায় কিছু অন্য পরিবর্তনের মধ্যে আছেঃ

  • বিচ্ছিন্নতা
    রোগটার সক্রিয় পর্বে বাড়িতে থাকা ভাল যেহেতু সংক্রমণ অন্যদের প্রতি ছড়াতে পারে। এমনকি বাড়িতেও, কাশি অথবা হাঁচির সময় মুখ ঢাকা, একটা ব্যবহার করে ফেলে দেবার মত ব্যাগ বা টিস্যুতে থুতু সংগ্রহ করা এবং তারপরে সেটা ফেলে দেওয়ার মত কাশির আদবকায়দাগুলি মেনে চলুন। কয়েক সপ্তাহের চিকিৎসার পর, যখন আপনি আর সংক্রামক থাকবেন না, আপনি আপনার স্বাভাবিক কাজকর্ম আবার শুরু করতে পারেন।   
  • ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধি
    রোগটার বিস্তার প্রতিরোধ করতে ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধি একটা অতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই ব্যবস্থাগুলির মধ্যে সামিল কামরা অবাধ বায়ু চলাচলের জন্য মুক্ত রাখা, নাক এবং মুখ ঢাকার জন্য মাস্ক বা মুখোশ ব্যবহার করা, এবং অন্যান্য সবকিছুর মধ্যে ব্যক্তিগত উপকরণ নিয়মিত পরিস্কার করা।   
  • সঠিক চিকিৎসা
    যথেষ্ট পরিমাণে বিশ্রাম নেওয়া এবং ওষুধের অনুসূচী অনুসরণ করা হল মূল ব্যাপার। যদি আপনি মাঝপথে ওষুধ নেওয়া বন্ধ করেন অথবা ওষুধের ডোজ (মাত্রা) বদল করেন, ওষুধের প্রতি প্রতিরোধ গড়ে ওঠার সম্ভাবনা থাকে, যার চিকিৎসা করা কঠিন এবং এমনকি দীর্ঘতর থেরাপি দরকার হতে পারে। ওষুধের অত্যধিক ব্যবহার বিপত্তি ঘটাতে পারে যেহেতু এইসমস্ত ওষুধের বেশির ভাগ লিভারের পক্ষে বিষাক্ত। 
  • নিয়মিত ফলো-আপ এবং রক্তের প্যারামিটারের (স্থিতিমাপের) মূল্যায়ন  
    নিয়মিতভাবে ওষুধ নেওয়া ছাড়া, নিয়মিতভাবে চেক-আপ-এর  (পরীক্ষা) জন্য আপনার ডাক্তারকে দেখানো জরুরি যেহেতু এই ওষুধগুলির লিভারের উপর কিছু ক্ষতিকর প্রভাব থাকে, রক্তকণিকার সম্পূর্ণ সংখ্যাগণনার (সিবিসি) মত রক্তের স্থিতিমাপ, ক্রিয়েটিনিন, এবং লিভার ফাংশন টেস্ট (এলএফটি) মোটামুটি হিসাব করা এবং মূল্যায়ন করা হয় নিশ্চিত করার জন্য যে এই ওষুধগুলি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করছে না।
  • পুষ্টিবিধানমূলক অবস্থা  
    একটা ভাল পুষ্টিবিধানমূলক অবস্থা অথবা ইতিবাচক নাইট্রোজেন ভারসাম্য স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধার চালিয়ে যেতে এবং ত্বরান্বিত (দ্রুততর) করতে এবং আরোগ্যলাভ পর্ব কমিয়ে আনার জন্য সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ। প্রোটিন এবং কার্বোহাইড্রেট (শর্করা) সমৃদ্ধ একটা ভাল ডায়েট, একটা স্বাস্থ্যকর ওজন বাড়ানোর ভিত্তি তৈরি করে, যা সংক্রমণের সময় কমা ওজনের ক্ষতিপূরণ করার জন্য জরুরি।


তথ্যসূত্র

  1. Center for Disease Control and Prevention [internet], Atlanta (GA): US Department of Health and Human Services; Tuberculosis (TB)
  2. Ian A Campbell, Oumou Bah-Sow. Pulmonary tuberculosis: diagnosis and treatment. BMJ. 2006 May 20; 332(7551): 1194–1197. PMID: 16709993
  3. Shourya Hegde, K B Rithesh, Kusai Baroudi, Dilshad Umar. Tuberculous Lymphadenitis: Early Diagnosis and Intervention. J Int Oral Health. 2014 Nov-Dec; 6(6): 96–98. PMID: 25628495
  4. Uma Debi, Vasudevan Ravisankar, Kaushal Kishor Prasad, Saroj Kant Sinha, Arun Kumar Sharma. Abdominal tuberculosis of the gastrointestinal tract: Revisited. World J Gastroenterol. 2014 Oct 28; 20(40): 14831–14840. PMID: 25356043
  5. Ravindra Kumar Garg, Dilip Singh Somvanshi. Spinal tuberculosis: A review. J Spinal Cord Med. 2011 Sep; 34(5): 440–454. PMID: 22118251
  6. Elizabeth De Francesco Daher, Geraldo Bezerra da Silva Junior, Elvino José Guardão Barros. Renal Tuberculosis in the Modern Era. Am J Trop Med Hyg. 2013 Jan 9; 88(1): 54–64. PMID: 23303798
  7. Sayantan Ray, Arunansu Talukdar, Supratip Kundu, Dibbendhu Khanra, Nikhil Sonthalia. Diagnosis and management of miliary tuberculosis: current state and future perspectives. Ther Clin Risk Manag. 2013; 9: 9–26. PMID: 23326198
  8. Center for Disease Control and Prevention [internet], Atlanta (GA): US Department of Health and Human Services; Tuberculosis (TB) Disease: Symptoms and Risk Factors
  9. National Health Service [internet]. UK; Tuberculosis (TB)
  10. Center for Disease Control and Prevention [internet], Atlanta (GA): US Department of Health and Human Services; Tuberculosis (TB)
  11. Vijayashree Yellappa, Pierre Lefèvre, Tullia Battaglioli, Devadasan Narayanan, Patrick Van der Stuyft. Coping with tuberculosis and directly observed treatment: a qualitative study among patients from South India. BMC Health Serv Res. 2016; 16: 283. PMID: 27430557
  12. National Jewish Health [Internet]; Coping With Mycobacterial Disease
  13. Shah M, Reed C. Complications of tuberculosis.. Curr Opin Infect Dis. 2014 Oct;27(5):403-10. PMID: 25028786

যক্ষ্মা ৰ ডক্তৰ

Dr. Arun R Dr. Arun R Infectious Disease
5 वर्षों का अनुभव
Dr. Neha Gupta Dr. Neha Gupta Infectious Disease
16 वर्षों का अनुभव
Dr. Lalit Shishara Dr. Lalit Shishara Infectious Disease
8 वर्षों का अनुभव
Dr. Alok Mishra Dr. Alok Mishra Infectious Disease
5 वर्षों का अनुभव
অনেক সময় অডিও র জন্য মুহূর্তের বিলম্ভ হতে পারে

যক্ষ্মা জন্য ঔষধ

যক্ষ্মা के लिए बहुत दवाइयां उपलब्ध हैं। नीचे यह सारी दवाइयां दी गयी हैं। लेकिन ध्यान रहे कि डॉक्टर से सलाह किये बिना आप कृपया कोई भी दवाई न लें। बिना डॉक्टर की सलाह से दवाई लेने से आपकी सेहत को गंभीर नुक्सान हो सकता है।

যক্ষ্মা की जांच का लैब टेस्ट करवाएं

যক্ষ্মা के लिए बहुत लैब टेस्ट उपलब्ध हैं। नीचे यहाँ सारे लैब टेस्ट दिए गए हैं: