myUpchar प्लस+ के साथ पूरेे परिवार के हेल्थ खर्च पर भारी बचत

সারাংশ

ত্বকের ওপর র‌্যাশ বা আমবাত হলে ত্বকের রং এবং চেহারা পাল্টে যায়, সাধারণ ত্বকের সঙ্গে যার পার্থক্য খুব সহজেই করা যায়। বিভিন্ন অন্তর্নিহিত কারণের জন্য শিশু এবং প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে এই সাধারণ উপসর্গ দেখা যায়। অধিকাংশ সময়ে খাবার বা ওষুধের অ্যালার্জির কারণে এটা হয়ে থাকে। তাছাড়া সূর্যের তাপে, বিশেষত গ্রীষ্মকালে, ত্বকের ওপর র‌্যাশ বা আমবাত দেখা যায়। ভাইরাস, ব্যাকটিরিয়া, ফাঙ্গাস, বা পরজীবীর সংক্রমণের কারণেও ত্বকের ওপর র‌্যাশ বা আমবাত হতে পারে। কোনও কোনও সময়ে কিছু ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসাবে ত্বকের র‌্যাশ দেখা দিতে পারে। আক্রান্ত ব্যক্তির স্বাস্থ্যের ইতিহাস বিশদে জেনে নিয়ে এবং র‌্যাশটি পর্যবেক্ষণ করে কোনও চর্ম বিশেষজ্ঞ রোগ নির্ণয় করতে পারেন। কখনও রসায়ানাগারে পরীক্ষা করে রোগ নির্ণয় করা যেতে পারে। সংক্রমণের কারণে ত্বকে র‌্যাশ বার হলে বিভিন্ন চিকিৎসার মধ্যে আছে উপযুক্ত ওষুধ প্রয়োগের সঙ্গে বিশ্রাম, প্রচুর জল খাওয়া, যে ওষুধের বিক্রিয়ার জন্য ত্বকে র‌্যাশ বেরিয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে তা বন্ধ করা, ক্ষতিকর রাসায়নিক, বিষাক্ত পদার্থ, এবং সূর্য রশ্মি থেকে দূরে থাকা। ত্বকে র‌্যাশ বার হওয়ার কারণ সম্পর্কে আগাম নিশ্চিত হওয়া সহজ, কারণ সাধারণত এটি কোনও অ্যালার্জি অথবা সংক্রমণ থেকে হয়ে থাকে, যা চিকিৎসা করলে নিরাময় হয়। কখনও কখনও কোনও অ্যালার্জি সংক্রমণের আগাম উপসর্গ হিসাবে ত্বকের র‌্যাশ দেখা যায়, যা থেকে প্রবল চুলকানি হয়, ফুলে যেতে পারে, এবং সর্বাঙ্গে ছড়িয়ে যেতে পারে এবং পরে সেগুলি ফুসকুড়ি বা ফোড়ায় পরিণত হয়।

  1. ফুসকুড়ি এর উপসর্গ - Symptoms of Skin Rash in Bengali
  2. ফুসকুড়ি এর চিকিৎসা - Treatment of Skin Rash in Bengali
  3. ফুসকুড়ি জন্য ঔষধ

ফুসকুড়ি এর উপসর্গ - Symptoms of Skin Rash in Bengali

বিভিন্ন অন্তর্নিহিত কারণের উপসর্গ হচ্ছে ত্বকের র‌্যাশ বা আমবাত। অন্যান্য উপসর্গের সঙ্গে ত্বকের র‌্যাশ দেখে পরিস্থিতির নির্ণয় সম্ভব। ত্বকের র‌্যাশের সঙ্গে অন্যান্য যে উপসর্গ থাকে সেগুলি হল:

  • চুলকানি
    বিভিন্ন পরিস্থিতিতে যেখানে ত্বকের র‌্যাশ বেরিয়েছে সেখানে চুলকানি হতে পারে। অধিকাংশ সময়ে অ্যালার্জির কারণে হতে পারে এবং কখনও ওষুধজনিত কারণে হতে পারে বা তা মূলত সংক্রামক হতে পারে।
  • জ্বর
    ত্বকের র্যাশ প্রাথমিক উপসর্গ হতে পারে, যার পরে জ্বর আসে বা কখনও ভাইরাস, ব্যাকটিরিয়া, ফাঙ্গাস, বা পরজীবীর সংক্রমণের কারণে ব্যাধির ক্ষেত্রে উল্টোটাও দেখা যায়। জ্বরের সঙ্গে যেখানে ত্বকের র‌্যাশ দেখা যায়, সেরকম কিছু রোগের উদাহরণ হল:
    • মশা বাহিত ডেঙ্গি নামের ভাইরাস থেকে হওয়া একই নামের রোগ। ত্বকের নিচে বিভিন্ন শিরা- উপশিরা ছিড়ে গেলে সেখানে ত্বকের র‌্যাশ বার হয় যা লাল রংয়ের স্পটের মত দেখা যায়। 
    • ব্যাকটিরিয়া সংক্রমণে রিউম্যাটিক ফিভার হতে পারে যেখানে হার্টের সংক্রমণ হয় এবং সমস্ত উপসর্গ হৃদরোগের উপসর্গের সঙ্গে মেলে।
    •  ক্যান্ডিডিয়াসিস হচ্ছে এক ধরনের ফাঙ্গাল সংক্রমণ,  যা হলে ত্বকের ভিতরের দিকে ফাঙ্গাসের বৃদ্ধি হওয়ার কারণে ত্বকের রং বিবর্ণ হতে দেখা যায়।
    • অপরিচ্ছন্ন থাকার জন্য আঙুলের ফাঁকে ফাঁকে পরজীবী বৃদ্ধির সম্ভাবনা তৈরি হয় এবং যেখানে রাত্রের দিকে চুলকানি হয়, ওই পরজীবীদের থেকেই খোস বা স্কেবিস হয়।      
  • লালচে ভাব
     ত্বকের র‌্যাশের সঙ্গে লালচে ভাব দেখা যায় এবং বহু সময় যা শরীরের অন্যান্য অঙ্গেও ছড়িয়ে যায়।
  • ফুলে যাওয়া
    কখনও ত্বকের র‌্যাশ ফুলে যায় বা বেলুনের মত লাগে যা বালাস পেমফিগাসের মত জল ভর্তি ফোড়ার মত দেখায়। কখনও তা সোরাইয়াসিস-এর আঁশের মত দেখায়, যা প্রথমে র‌্যাশ হয় পরে চকচকে সাদা আঁশের মত হয়ে যায়। এই র‌্যাশ সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সারা শরীরের ছড়িয়ে পড়ে এবং ওপরের আঁশের মত অংশটি খুলে পড়লে রক্তক্ষরণ হয়।  

ফুসকুড়ি এর চিকিৎসা - Treatment of Skin Rash in Bengali

ত্বকের র্যাশ বা আমবাতের চিকিৎসা অন্তর্নিহিত কারণের ওপর ভিত্তি করেই হয়ে থাকে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে কিছু ঘরোয়া প্রতিকারের সাহায্যে অথবা ওষুধের দোকান থেকে সরাসরি কেনা ওষুধ যেমন ক্যালামাইন মলম লাগালে নিরাময় হয়। র‌্যাশের তীব্র আকার ধারণ করলে এবং কিছু র‌্যাশের সঙ্গে যদি অন্তর্নিহিত কারণ থাকলে নির্দিষ্ট ওষুধের প্রয়োজন হয়।

  • ঘরোয়া প্রতিকার
    • অধিকাংশ সময়ে ত্বকের র‌্যাশের কোনও চিকিৎসার প্রয়োজন হয় না এবং নিজে থেকেই মিলিয়ে যায়। যেমন, 5 বছরের নিচে শিশুদের ক্ষেত্রে হাত, পা এবং মুখে ভাইরাসজনিত কারণে রোগ হলে শুধুমাত্র বিশ্রামের প্রয়োজন। তবে, যদি ত্বকের র‌্যাশ একদিনের বেশি থাকে, এবং তার সঙ্গে ব্যাথা, জ্বর, ফোলা, এবং চুলকানি থাকে তাহলে মুখ ফিরিয়ে থাকলে চলবে না, এবং কারণ নির্ণয়ের জন্য অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।
    • যার মধ্যে কড়া কোনও রাসায়নিক নেই এমন কোনও নরম সাবান দিয়ে র‌্যাশটি ধুইয়ে দিন।
    • র‌্যাশের ওপরে বরফের প্যাক দিন যাতে আরাম হয় এবং লাল ভাব কমে।
    • র‌্যাশের ওপরে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে দিন। তাতে ত্বকের আরাম হবে।
    • স্নানের সময় বা র‌্যাশ পরিষ্কার করার সময় গরম জল ব্যবহার করবেন না। করলে, তা র‌্যাশটির তীব্রতা এবং চুলকানি এবং লাল ভাব বাড়িয়ে দেবে।
    • র‌্যাশটি ঢাকা দেওয়ার জন্য ব্যান্ড-এড বা ব্যান্ডেজ জাতীয় কিছু ব্যবহার করবেন না এবং সম্ভব হলে সেটি খোলা রাখার চেষ্টা করুন যাতে কোনওরকম ঘষা না লাগে।
  • র‌্যাশের চিকিৎসা
     বিভিন্ন অন্তর্নিহিত কারণ বিবেচনা করে আপনার চিকিৎসক ওষুধের পরামর্শ দিতে পারেন। তার মধ্যে থাকবে:
    • খাদ্য, ওষুধ, পদার্থ বা কীট পতঙ্গের কামড় থেকে সম্ভাব্য অ্যালার্জির কথা মাথায় রেখে চিকিৎসক আপনাকে অ্যান্টি অ্যালার্জিক ওষুধ নেওয়ার পরামর্শ দিতে পারেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে র‌্যাশের নিরাময়ের জন্য অ্যান্টি অ্যালার্জিক ট্যাবলেটের এক বা দুই ডোজেই কাজ হয়।
    • লাল হয়ে থাকা, ব্যাথা বা ফোলা যদি একযোগে র‌্যাশের সঙ্গে থাকে তাহলে প্রদাহরোধী অ্যান্টি ইনফ্লেমটরি ওষুধ প্রয়োগের পরামর্শও থাকতে পারে।
    • সংক্রমণের চিকিৎসার জন্য অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল, অ্যান্টিভাইরাল, অ্যান্টিফাঙ্গাল এবং অ্যান্টি প্যারাসাইটিক ওষুধ প্রয়োগের পরামর্শও থাকতে পারে।
    • সাময়িক অ্যান্টি হিস্টামাইন অথবা স্টেরয়েড ক্রিম এবং মলম প্রয়োগের পরামর্শ থাকতে পারে যাতে লালচেভাব, চুলকানি, এবং প্রদাহ বা ফোলা কমে।
    • ত্বকের র‌্যাশ তীব্র হলে চিকিৎসকের পরামর্শে স্টেরয়েড ইনজেকশন নিতে হতে পারে।

জীবনশৈলী ব্যবস্থাপনা (লাইফস্টাইল ম্যানেজমেন্ট)

যাঁদের খাদ্যে অথবা কসমেটিকে উপস্থিত অ্যালার্জেন থেকে ত্বকের র‌্যাশ হয় তাঁদের ওই অ্যালার্জেন থেকে দূরে থাকা উচিত এবং খাদ্য বা ত্বকের যত্নের জন্য যে সব পণ্য বাজারে পাওয়া যায় সেগুলির ওপরে সাঁটানো লেবেল পড়ে নিলে ভবিষ্যতে ত্বকের র‌্যাশ প্রতিরোধে সাহায্য হয়। সূর্যের আলোয় বেরোবার আগে সানস্ক্রিন ক্রিম লাগিয়ে নিলে ফোটো-অ্যালার্জি এবং গরমে বার হওয়া র‌্যাশ প্রতিরোধ সম্ভব হতে পারে। দৈনিক স্নান, কাচা কাপড় পরা, নখ কাটা এবং হাত ধোয়ার মত স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করলে সংক্রমণ এবং ত্বকের র‌্যাশ প্রতিরোধে সাহায্য হয়।

ফুসকুড়ি জন্য ঔষধ

ফুসকুড়ি के लिए बहुत दवाइयां उपलब्ध हैं। नीचे यह सारी दवाइयां दी गयी हैं। लेकिन ध्यान रहे कि डॉक्टर से सलाह किये बिना आप कृपया कोई भी दवाई न लें। बिना डॉक्टर की सलाह से दवाई लेने से आपकी सेहत को गंभीर नुक्सान हो सकता है।

Medicine NamePack SizePrice (Rs.)
CofrylCofryl 25 Mg Syrup68.5
DifDif 25 Mg Suspension37.9
ZendrylZendryl 25 Mg Capsule17.25
AldrylAldryl Soft Gelatin Capsule11.12
Caladryl(Piramal)Caladryl Lotion56.45
MeladrylMeladryl 1% W/V Lotion45.0
Ascoril DAscoril D 5 Mg/10 Mg/1.25 Mg Syrup0.0
CoritussCorituss Syrup0.0
DeletusDeletus 10 Mg/5 Mg/1.25 Mg Tablet0.0
Kofnok DKofnok D Syrup49.52
New Deletus DNew Deletus D Syrup69.2
RatifedRatifed Syrup91.36
Ascoril Plus DAscoril Plus D Syrup94.0
Refid DRefid D Syrup60.0
Coryl TabletCoryl Tablet0.0
Denituss DDenituss D Syrup38.05
Oripect CcOripect Cc Syrup32.15
Megatuss DMegatuss D Syrup20.37
Recofast PlusRecofast Plus 500 Mg/60 Mg/2.5 Mg Tablet37.0
Actifed PlusActifed Plus Suspension28.62
FastorikFastorik Tablet17.7
Nocold PlusNocold Plus 125 Mg/60 Mg/1 Mg Syrup16.68
SensitusSensitus 300 Mg/60 Mg/24 Mg Syrup49.0
Ascodex PlusAscodex Plus Syrup43.52
HadensaHadensa Capsule40.0

আপনার অথবা আপনার পরিবারে কারোর কি এই রোগ আছে? দয়া করে একটা সমীক্ষা করুন এবং অন্যদের সাহায্য করুন।

और पढ़ें ...