স্কিন ডিসকালারেশন (ত্বকের বিবর্ণতা) - Skin Discolouration in Bengali

Dr. Ayush PandeyMBBS,PG Diploma

May 07, 2019

March 06, 2020

স্কিন ডিসকালারেশন
স্কিন ডিসকালারেশন

স্কিন ডিসকালারেশন (ত্বকের বিবর্ণতা) কি?

স্কিন ডিসকালারেশন (ত্বকের বিবর্ণতা) বলতে চামড়ায় রঙ পরিবর্তনের অনিয়মিত দাগছোপকে বোঝায়। ত্বকের বিবর্ণতা অপেক্ষাকৃতভাবে সাধারণ সমস্যা এবং চোটআঘাত, প্রদাহ অথবা চামড়ার আরও গুরুতর অন্তর্নিহিত সমস্যার মতো নানা কারণে হতে পারে। ত্বকের রঙ পরিবর্তন অথবা বিবর্ণতা মেলানিনের পরিবর্তিত মাত্রার ফলে দেখা দেয়।

এর প্রধান লক্ষণ ও উপসর্গ কি?

কারণের ওপর নির্ভর করে ত্বকের বিবর্ণতার ফলে হওয়া এই দাগছোপের লক্ষণ ভিন্ন হতে পারে, এর মধ্যে রয়েছে:

  • চামড়ায় গাঢ় বা হাল্কা রঙয়ের অথবা উভয় ধরনের দাগছোপ।
  • চুলকুনি
  • লালচেভাব।
  • দাগছোপের জায়গায় অনুভূতি হ্রাস অথবা লোপ পাওয়া।
  • হাইপারঅ্যাস্থেসিয়া (সংবেদনশীলতা বৃদ্ধি)।

এর প্রধান কারণ কি?

ত্বকের বিবর্ণতা ব্যাপক শ্রেণিবদ্ধ অবস্থার কারণে হয়, এরমধ্যে সাধারণ অ্যালার্জিজনিত সমস্যা থেকে শুরু করে গুরুতর রকমের অটোইমিউন রোগও রয়েছে। কিছু সাধারণ কারণ হল:

এটি কিভাবে নির্ণয় এবং চিকিৎসা করা হয়?

ত্বকের বিবর্ণতার উপযুক্ত চিকিৎসামূলক পরীক্ষার পাশাপাশি চিকিৎসাজনিত ইতিহাস সাধারণত রোগ নির্ণয়ে  ইঙ্গিতবাহী, কিন্তু রোগ নির্ণয় নিশ্চিত করতে এবং যথাযথ চিকিৎসা পরিষেবা প্রদানের জন্য নির্দিষ্ট কিছু অনুসন্ধানের দরকার পড়ে। অনুসন্ধানমূলক পরীক্ষাগুলি হল:

  • রক্ত পরীক্ষা – অ্যালার্জি এবং অটোইমিউন রোগ সনাক্ত করার জন্য নির্দিষ্ট কিছু পরীক্ষা। পরীক্ষাগুলির মধ্যে রয়েছে কমপ্লিট ব্লাড কাউন্ট (সিবিসি), সি-রিঅ্যাক্টিভ প্রোটিন (সিআরপি) এবং অ্যান্টি-নিউক্লিয়ার অ্যান্টিবডিস (এএনএ)।
  • উডস ল্যাম্প পরীক্ষা – ব্যাক্টিরিয়া ও ছত্রাক ঘটিত সংক্রমণ সনাক্ত করতে সাহায্য করে এই পরীক্ষা।
  • ত্বকের বায়োপসি – অণুবীক্ষণ যন্ত্রের তলায় কোষের পরীক্ষায় সহায়ক।

চিকিৎসার মাপকাঠি পুরোপুরি রোগের কারণের ওপর নির্ভর করে। একবার কারণ জানা গেলে, বিবর্ণতা দূর করা সাধারণত খুব সহজ হয়ে যায়। চিকিৎসার লক্ষ্যই হলো অন্তর্নিহিত অসুখ সারানো, তাতে আপনা থেকেই বিবর্ণতা চলে যায়। তবে, কিছু অবস্থায় আবার এটা সম্ভব নাও হতে পারে। কিছু ওষুধ রয়েছে যা এই বিবর্ণতা দূর করতে সাহায্য করে, এগুলি হল:

  • লোকাল অ্যাপ্লিকেশন – ভিটামিন এ, ভিটামিন ই অথবা হাইড্রোকুইননের মতো টপিকাল মলমের প্রয়োগ দাগছোপ পরিষ্কার করে দেয়।
  • কেমিকেল পিলিং – গ্লাইকোলিক অ্যাসিড অথবা স্যালাইসিলিক অ্যাসিড ত্বকের উপরিভাগের স্তরকে আপনা থেকে ছাড়িয়ে তুলে দিতে সাহায্য করে (সাধারণত বিবর্ণ হয়ে যাওয়া ত্বক)।
  • লেজার থেরাপি – গাঢ় দাগছোপকে ফিকে করতে লেজার থেরাপি কাজ দেয়।



তথ্যসূত্র

  1. American Academy of Dermatology. Rosemont (IL), US; Variety of options available to treat pigmentation problems.
  2. National Institute of Arthritirs and Musculoskeletal and Skin Disease. [Internet]. U.S. Department of Health & Human Services; Autoimmune Diseases.
  3. National Institutes of Health; [Internet]. U.S. National Library of Medicine. Skin Pigmentation Disorders.
  4. MedlinePlus Medical Encyclopedia: US National Library of Medicine; Abnormally dark or light skin.
  5. Thomas Habif et al. Skin Disease. 4th Edition September 2017; Elsevier

স্কিন ডিসকালারেশন (ত্বকের বিবর্ণতা) ৰ ডক্তৰ

Dr. Merwin Polycarp Dr. Merwin Polycarp Dermatology
15 Years of Experience
Dr. Raju Singh Dr. Raju Singh Dermatology
1 Years of Experience
Dr. Afroz Alam Dr. Afroz Alam Dermatology
4 Years of Experience
Dr. Pranjal Praveen Dr. Pranjal Praveen Dermatology
5 Years of Experience
অনেক সময় অডিও র জন্য মুহূর্তের বিলম্ভ হতে পারে