myUpchar प्लस+ के साथ पूरेे परिवार के हेल्थ खर्च पर भारी बचत

হিন্দুদের কাছে গরু একটি পবিত্র প্রাণী। প্রাচীন ভারতে চাষাবাদ এবং গরু ও ছাগল পালন ছিল উপার্জনের এইটি প্রধান উৎস। সেই আদি যুগ থেকেই গরুকে পূজা করার প্রথা চালু আছে। মূলত এর দুধের কারণেই গরুর অর্থনৈতিক মূল্য ছিল খুবই উঁচু। গোমূত্রের ব্যবহারও চালু ছিল।

আপনি জিজ্ঞাসা করতেই পারেন যে কেন গোমূত্র?

আপনি জেনে অবাক হবেন যে গোমূত্র এবং গোবর, এই দুইটিরই চিকিৎসার উপকরণ হিসাবে মূল্যবান! তথ্যটি এই যে পঞ্চগব্য হল গরুর দুধ, মূত্র, ঘি, দই এবং গোবরের মিশ্রণ। এই পঞ্চগব্যের ঔষধি ব্যবহার আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে বলা আছে। চিকিৎসা বিষয়ক সংস্কৃত গ্রন্থ, সুশ্রুত সংহিতা অনুযায়ী গরু থেকে প্রাপ্ত সব বস্তুগুলির মধ্যে গোমূত্রকে সব চেয়ে কার্যকর উপশমকারী বলে মনে করা হয়।

আয়ুর্বেদ গোমূত্রকে অমৃত বা জীবনদায়ী জল বলে মনে করা হয়। নাইজেরিয়ায় এবং মায়ানমারের লোক-চিকিৎসকরাও তাদের ওষুধে গোমূত্রকে অন্তর্গত করেছেন।

কেউ কেউ মনে করেন যে সূর্যোদয়ের আগে সংগ্রহ করা কুমারী গরুর মূত্র পান করাই শ্রেষ্ঠ। আবার কেউ কেউ মনে করেন যে গাভিন (গর্ভবতী) গরুর মূত্রই সব চেয়ে পুষ্টিকর কারণ এতে বিশেষ হরমোন থাকে। বিশ্বাস করা হয় যে গোমূত্রের ব্যবহারে প্রায় 80 রকমের অনারোগ্য রোগের এবং অন্যান্য সমস্যার নিরাময় করা যায়।

ঔষধি গুণ ছাড়াও গোমূত্রের আরও অনেক ব্যবহার আছে। জৈব চাষে ব্যাপকভাবে গোমূত্র সার হিসাবে ব্যবহার করা হয়। নিম পাতার আর গোমূত্র এক সাথে মিশিয়ে চমৎকার বায়ো-পেস্টিসাইড হয়। গোমূত্র প্রচলিত পরিষ্কার করার দ্রবণের   অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল ক্ষমতাকে বাড়িয়ে তোলে। তাই বিশেষ করে মেঝে পরিষ্কার করার জন্যও গোমূত্র ব্যবহার করা হয়। বিশ্বাস করা হয় যে গোমূত্র দিয়ে মেঝে পরিষ্কার করলে স্থানটি জীবাণু-মুক্ত হয়ে একটি পবিত্র স্থান হয়ে যায়। কসমেটিকস, বিশেষত শ্যাম্পু এবং সাবান প্রস্তুতে গোমূত্র ব্যবহার করা হয়।

  1. গোমূত্রের পুষ্টিগুণ সংক্রান্ত তথ্য - Cow urine nutrition facts in Bengali
  2. গোমূত্রের স্বাস্থ্য-সংক্রান্ত উপকার - Cow urine health benefits in Bengali
  3. গোমূত্রের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া - Cow urine side effects in Bengali
  4. উপসংহার - Takeaway in Bengali

গবেষণা অনুসারে গোমূত্র বিষাক্ত নয় বলে বিবেচনা করা হয়। এতে থাকে 95% জল, 2.5% ইউরিয়া এবং বাকি 2.5% হল বিভিন্ন লবণ, খনিজ, এনজাইম এবং অন্যান্য উপকারী হরমোন। ক্রিয়াটিনিন, অরিয়াম অক্সাইড, কার্বলিক অ্যাসিড, ফেনল, ক্যালসিয়াম এবং ম্যাঙ্গানিজ'এর মত কিছু গুরুত্বপূর্ণ খনিজ এবং এনজাইম গোমূত্রে থাকে।

পুষ্টি মান (%)
জল 95%
ইউরিয়া 2.5%
অন্যান্য এনজাইম এবং যৌগ 2.5%

পুষ্টি-সমৃদ্ধ গোমূত্র দিয়ে বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা করা যায়। আয়ুর্বেদ অনুযায়ী, শুধু গোমূত্র, অথবা গোমূত্র ও গোদুগ্ধের মিশ্রণ অথবা গোমূত্র ও ত্রিফলার সংমিশ্রণ দিয়ে কিছু রোগের চিকিৎসা করা যায়, যেমন জ্বর, কলিক ব্যথা, রক্তাল্পতা, কুষ্ঠ, কর্কট রোগ এবং মৃগী।

  • কর্কট রোগের জন্য: গোমূত্রের অ্যাটি-অক্সিডেন্ট গুণ আছে, তাই কর্কট রোগের কার্যকর চিকিৎসা করা যায়। এর ফলে ডিএনএ'র ক্ষতি হ্রাস হয়।
  • অন্ত্রের ক্রিমির জন্য: অন্ত্রের ক্রিমির চিকিৎসার জন্য পারম্পরিক চিকিৎসা পদ্ধতিতে গোমূত্র ব্যবহার করা হয়, এবং ক্লিনিক্যাল পরীক্ষাতেও এটি যাচাই করা হয়েছে।
  • বায়ো-এনহ্যান্সার: দেহের অভ্যন্তরে অন্য ওষুধ যাতে সঠিক ভাবে কাজ করতে পারে তার জন্য প্রায়শই ওষুধের সাথে গোমূত্র দেওয়া হয়।
  • প্রতিরোধ ক্ষমতা: দেহের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার জন্য গোমূত্র চমৎকার কাজ করে। কারণ গোমূত্র রক্তের ডাব্লিউবিসি'র সংখ্যা বৃদ্ধি করে এবং হিউমোরাল এবং কোষের মধ্যস্থতায় প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা উন্নতি করে।
  • ত্বকের জন্য: গোমূত্র অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। ফলে এটি ত্বকের বলিরেখা এবং কুঞ্চন হ্রাস করে ত্বককে বয়স বৃদ্ধির চিহ্নগুলিকে হ্রাস করে। যেহেতু গোমূত্র বয়সের ছাপ পড়াকে দেরি করিয়ে দিতে পারে, তাই একে জীবন-দায়ী তরল বলা হয়।
  • হজমের জন্য: গোমূত্র হজমে সহায়তা করে, ফলে, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়। হেমারয়েডগুলিকে, এবং তার জন্য কোন জটিলতাকে প্রতিরোধ করতে পারে।
  • অন্যান্য: গোমূত্র সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে পারে, রক্তাল্পতা এবং মৃগী রোগেও উপশমে সহায়তা করে। এমন কি, যকৃতের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

যদিও গোমূত্র অনেক রোগের প্রাকৃতিক প্রতিকার, অনুপযুক্ত ভাবে মজুত করা, ভুল সংমিশ্রণ বা ভুল ব্যবহারে স্বাস্থ্যের বিপদ হতে পারে।

  • গরুটি যদি সংক্রামিত হয় তবে গরু প্রস্রাবে প্যাথোজেন থাকতে পারে।
  • কাঁচা গোমূত্রকে এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে সংরক্ষণের পরামর্শ দেওয়া হয় না।
  • 10 বছরের কম বয়সী শিশুদেরও গোমূত্র পান করাবার পরামর্শ দেওয়া হয় না
  • যে পুরুষদের প্রজনন সংক্রান্ত সমস্যা আছে বা যাদের ঘুম কম হয়, তারা গোমূত্র নেবেন না।
  • একটি গবেষণায়, একজন ব্যক্তিকে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই চোখে গোমূত্র দেওয়া হয়েছিল। ফলে দুই দিনের জন্য তার চোখে ব্যথা হয়েছিল এবং দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে গিয়েছিল।

গোমূত্রের নানাবিধ স্বাস্থ্য সংক্রান্ত উপকারিতা আছে। এর অনেক চমৎকার গুণ আছে যার কারণে এটি অনেক অসুখের প্রতিকার করতে পারে, যেমন, মধুমেহর ব্যবস্থাপনা, ক্ষত নিরাময় এবং দেহের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার উন্নতি। বায়ো-এনহ্যান্সার হিসাবে অনেক অ্যান্টি-বায়োটিক এবং অন্যান্য ওষুধের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করতে পারে। তবে গোমূত্রকে কোন বিশ্বস্ত উৎস থেকে কিনতে হবে নয়তো এতে অসুস্থ গরুর দেহের জীবাণুর সংক্রমণ থাকতে পারে। আপনি যদি বর্তমানে কোন ওষুধ নিতে থাকেন অথবা কোন অসুখে ভুগতে থাকেন, তাহলে গোমূত্র নেওয়ার আগে অবশ্যই একজন চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করে নেবেন।

और पढ़ें ...