myUpchar प्लस+ के साथ पूरेे परिवार के हेल्थ खर्च पर भारी बचत

বাদাম রোজকার প্রণালীতে খানিকটা মুচমুচে ভাব এবং স্বাদ যোগ করার সর্বোত্তম উপায়গুলির একটি। পুষ্টিকর হওয়া বাদে এগুলি প্রচুর সক্রিয় জৈব যৌগ বহন করে যা নিরাময় করে এবং স্বাস্থ্যবর্ধনে সাহায্য করে। আখরোট তার থেকে কিছুই আলাদা নয়। আমরা প্রায় সবাই জানি যে বাদামের কি উপকারিতা রয়েছে মস্তিষ্ক এবং হৃদয়ের জন্য। তবে এই বাদামের আপনার স্বাস্থ্যে দেওয়ার মত অনেককিছু রয়েছে।

এটি ফাইবার, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অসম্পৃক্ত চর্বি প্রদানকারী একটি ভাল উৎস যেটি আপনার খাদ্যাভ্যাসে একটি স্বাস্থ্যকর সংযোজন। এটির ব্যবহার বলা যায় খাবার, ওষুধ, অবলম্বন, রং এবং বাতির তেল হিসেবে। আখরোট যেরকম রয়েছে সেভাবেই খাওয়া যেতে পারে, দগ্ধ হতে পারে, আচারের আকারে খাওয়া যেতে পারে বা আখরোটের মাখন হিসেবেও খাওয়া যেতে পারে। আখরোট ব্রাউনির প্রণালীতেও ব্যবহার করা যেতে পারে, কেক, পাই, আইসক্রিমের টপিং এবং কিছু রান্নার আভরণ হিসেবেও ব্যবহার করা যেতে পারে। আখরোট খাওয়ার আরেকটি পদ্ধতি হল আখরোটের দুধ, যা স্মুদির ক্রিম জাতীয় ভীত হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে।  

বিশ্বাস করা হয় যে আখরোট গাছের বয়স প্রায় 700 বি সি। চতুর্থ শতাব্দী এ ডি-তে, রোমানীয়রা প্রচুর ইউরোপীয় দেশে আখরোট প্রবর্তিত করে যেখানে সেটি সেই সময় থেকে আজও ফলানো হয়। আমরা যেই বাণিজ্যিক আখরোটের সাথে পরিচিত তা স্থানীয় মূলত ভারতের এবং ক্যাস্পিয়ান সমুদ্রের আশপাশের অঞ্চলের। ইংরেজ আখরোট হিসেবে পরিচিত, এটির নামকরন হয়েছে ইংরেজ বণিকদের আদলে যারা সারা বিশ্বে বাণিজ্যের জন্য ঘুরে বেড়াতো। কালো আখরোট হচ্ছে এটির আরেকটি প্রকার যা উত্তর আমেরিকার স্থানীয়। আখরোট এখন চিনেও ফলানো হয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ক্যালিফোর্নিয়া ও অ্যারিজোনাতে।

জানতেন কি?

অন্যান্য বাদামের মত আখরোট প্রকৃতপক্ষে বাদাম নয় বরং এটি গোলাকার, এক বীজের আঁটিযুক্ত শাঁসালো ফল যা আখরোট গাছ থেকে গৃহীত। যেই আখরোটের সাথে আমরা পরিচিত সেটি পাওয়া যায় আখরোট ফলের বীজকে দুই ভাগে ভাগ করে।

আখরোটের বিষয়ে কিছু মৌলিক তথ্যঃ

  • বোটানিকাল নামঃ জুগ্লান্স রেজিয়া (ইংরেজ আখরোট)
  • পরিবারঃ জুগ্লানদাসি
  • প্রচলিত নামঃ আখরোট
  • ব্যবহৃত অংশঃ আখরোটের শাঁস হল সেই অংশ যা মূলত ব্যবহার হয়। এটির খোল পাতারও স্বাস্থপকারিতা রয়েছে বলে শোনা যায়।
  • স্থানীয় অঞ্চল এবং ভৌগোলিক বণ্টনঃ যদিও একসময়ে আখরোট ভারত এবং উত্তর আমেরিকার স্থানীয় ছিল, এখন সেটি বাণিজ্যিকভাবে চিন, ইরান, তুরস্ক, মেক্সিকো, ইউক্রেন, চিলি, এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ফলানো হয়। 2016-17 সালে চিন সারা বিশ্বের বৃহত্তম আখরোট উৎপাদক হয়। চিন বিশ্বের আখরোট উৎপাদনের 50% ফলিয়েছে। ভারতে আখরোট চাষ করা হয় জম্মু ও কাশ্মীর, উত্তরাঞ্চল, হিমাচল প্রদেশ এবং অরুণাচল প্রদেশের মত উত্তর ও উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলি। জম্মু ও কাশ্মীর ভারতে আখরোটের বৃহত্তম উৎপাদক।
  • মজাদার তথ্যঃ আদিম রোমান যুগে আখরোট ভগবানদের খাবার হিসেবে গণ্য করা হত। এবং এটি জুপিটারের নামের আদলে নামকরণ করা হয়েছে জুগ্লান্স রেজিয়া
  1. আখরোটের পুষ্টিগুণের তথ্য - Walnuts nutrition facts in Bengali
  2. আখরোটের স্বাস্থপকারিতা - Walnuts health benefits in Bengali
  3. আখরোটের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া - Walnuts Side effects in Bengali
  4. উপসংহার - Takeaway in Bengali

আখরোট অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন ই এবং ভাল পরিমাণে বহু-অপরিপৃক্ত চর্বি সমৃদ্ধ। এটি তৈরি 65% চর্বি এবং 15% প্রোটিন দিয়ে এবং কার্বোহাইড্রেট থাকে স্বল্প পরিমাণে। এটি ফাইবারেও সমৃদ্ধ। অন্যান্য বাদামের মত, আখরোটের অধিকাংশ ক্যালোরি আসে এটিতে থাকা উচ্চ চর্বির পরিমাণ থেকে। এইগুলি এটিকে শক্তি-ঘন, উচ্চ ক্যালোরির খাবার।

এক চতুর্থাংশ কাপ আখরোট রোজকার সুপারিশ করা গাছ-ভিত্তিক ওমেগা-3 চর্বি, এবং তামা, ম্যাঙ্গানিজ, মলিবডেনাম এবং বায়োটিনের 100%-এরও বেশি প্রদান করে।

ইউএসডিএ পুষ্টিগুণের ডেটাবেস অনুযায়ী, 100গ্রা আখ্রতে নিম্নলিখিত পুষ্টিগুণ রয়েছে।

পুষ্টিগুণ মুল্য প্রতি 100 গ্রা
জল 6.28 গ্রা
শক্তি 500 কিক্যাল
প্রোটিন 8.28 গ্রা
চর্বি 35.71 গ্রা
কার্বোহাইড্রেট 47.59 গ্রা
ফাইবার 3.6 গ্রা
চিনি 32.14 গ্রা
খনিজ  
ক্যালসিয়াম 71 মিগ্রা
লোহা 1.29 মিগ্রা
পটাসিয়াম 232 মিগ্রা
সোডিয়াম 446 মিগ্রা
চর্বি/ফ্যাটি অ্যাসিড  
সুসিক্ত 3.571 গ্রা
একক-সুসিক্ত 5.357 গ্রা
বহু-সুসিক্ত 25 গ্রা

আখরোটের প্রচুর উপকারিতা রয়েছে আপনার স্বাস্থ্য এবং ভাল থাকার জন্য। কিন্তু ঠিক কিভাবে এটি আপনাকে ফিট থাকতে সাহায্য করে? আপনি সেতা এই অংশে খুঁজে পাবেনঃ

  • মস্তিষ্কের জন্যঃ আখরোট অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং বহু-পরিপৃক্ত ফ্যাটি অ্যাসিডে সমৃদ্ধ, যা মস্তিষ্কের জন্য এটিকে অত্যন্ত ভাল খাবার বানিয়ে তোলে। DHA এবং ALA মস্তিষ্কের গঠন এবং কার্যকারিতা উন্নত করে, এবং এইভাবে স্মৃতিশক্তি ও দৈনিক চক্র নিয়ন্ত্রণ করে। এটি পারকিনসন্স রোগ এবং অ্যালজাইমার’স হওয়ার ঝুঁকি কমিয়ে দেয় এবং হৃদরোগ ও মৃগীরোগ প্রতিরোধ করে।
  • ওজন কমানোর জন্যঃ আখরোট ফাইবারের একটি সমৃদ্ধ উৎস এবং এটি আপনাকে পরিপূর্ণ রাখে বেশিক্ষণ যার জন্য এটি একটি স্বাস্থ্যকর জলখাবার। এটি আপনার শরীরের হজমশক্তি এবং লিপিড পরিপাক করার ক্ষমতা উন্নত করে।
  • হৃদয়ের জন্যঃ অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ হওয়ার দরুন, আখরোট আপনার হৃদয়ের স্বাস্থের জন্য ভাল। এটি আপনার রক্তচাপ ও কোলেস্টেরল কমিয়ে কার্ডিওভাসকুলার রোগের অশঙ্কা কমিয়ে দেয়।
  • বার্ধক্য-বিরোধী হিসেবেঃ এটির অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট তত্ত্ব এটিকে একটি বার্ধক্য-বিরোধী খাবার বানায় যা শুধুমাত্র চুল ও ত্বকে বার্ধক্যের দৈহিক লক্ষণগুলিই নিয়ন্ত্রণ করে না, এটি আপনার স্মৃতিশক্তির ক্রিয়া বয়স বাড়লেও উন্নত রাখে।
  • ডায়বিটিসের জন্যঃ ক্লিনিকাল গবেষণায় প্রমাণিত যে আখরোট ডায়বিটিস প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।
  • ক্যানসারের বিরুদ্ধেঃ আখরোট খলে তা ক্যানসার হওয়ার ঝুঁকি কমিয়ে দেয় বিশেষত প্রস্টেট এবং মলদ্বারের।
  • উর্বরতার জন্যঃ আখরোট পুরুষদের মধ্যে যৌন কার্যকারিতা উন্নত করে শুক্রাণুর সংখ্যা এবং গুনমান উন্নত করে।

আখরোট ঠাসা স্বাস্থ্যবর্ধক পুষ্টিগুণে এবং এর প্রচুর স্বাস্থপকারিতা রয়েছে। যদিও, আখরোটের বেশ কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও রয়েছে।

  • কিছু লোকের মধ্যে আখরোট এলার্জির প্রতিক্রিয়ার কারণ হতে পারে। প্রতিক্রিয়ার তীব্রতা একেক ব্যক্তির ক্ষেত্রে পৃথক হতে পারে। আখরোটের অ্যালার্জির কিছু সাধারণ লক্ষণ হল জিভে এবং মুখে চুলকানি, আমবাত, গলা ফুলে যাওয়া, হাঁপানির টান, আনাফিলাক্তিক অভিঘাত
  • আখরোটের অতিরিক্ত সেবন কিছু লোকের ক্ষেত্রে ত্বকে ফুসকুড়ি এবং ফুলে যাওয়া হিসেবে দেখা দিতে পারে, বিশেষত যারা বাদামের প্রতি সংবেদনশীল।
  • আখরোট পরিচিত খাদ্যগত ফাইবারের একটি দুর্দান্ত উৎস হিসেবে। কিন্তু যদি এটি অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়া হয়, এই ফাইবার ডায়রিয়া এবং পেট ব্যথার রূপে দেখা দিতে পারে।
  • হিস্টামিনের মত অ্যালারজেন আখরোটে থাকার দরুন এটি আপনার স্বাস্থ্যের অবস্থা খারাপ করতে পারে। এটি বমিভাব এবং পেট ব্যথার মত প্রতিক্রিয়ার কারণ হতে পারে।
  • হাঁপানির রুগীদের জন্য আখরোট বিপদজনক হতে পারে, যার ফলে নিশ্বাস নিতে অসুবিধা, জিভ ও গলা ফুলে যেতে পারে।

আখরোট আপনার মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য উন্নত করে এবং হৃদরোগ এবং ক্যানসার প্রতিরোধ করে। আখরোট ফাইবারে সমৃদ্ধ এবং ওমেগা-3-ফ্যাটি অ্যাসিড এবং অন্যান্য খনিজ বস্তু এবং পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ। মাঝারি পরিমাণে দৈনিক আখরোট সেবন করলে তা বিস্ময়কর পরিনাম দেখাতে পারে। যদিও, কিছু লোকের আখরোটে অ্যালার্জি থাকতে পারে। আপনার যদি অন্যান্য বাদামে অ্যালার্জি থাকে তাহলে আখরোট খাওয়ার আগে আপনার একটি অ্যালার্জি পরীক্ষা করিয়ে নেওয়া সমীচীন।

और पढ़ें ...