myUpchar प्लस+ के साथ पूरेे परिवार के हेल्थ खर्च पर भारी बचत

দারুচিনি একটা সুগন্ধযুক্ত মশলা হিসাবে প্রায় প্রতিটা রান্নাঘরে দেখতে পাওয়া যায়। দারুচিনির জোরালো সুগন্ধ এবং স্বাদ একে মিষ্টি এবং মশলাদার বিনোদনের একটা খাঁটি ফোড়ন হিসাবে উপস্থিত করে। কিন্তু এই মশলা শুধুমাত্র রান্নাঘরের আলমারির মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই। আয়ুর্বেদীয় এবং ট্র্যাডিশনাল চাইনিজ মেডিসিন-এ (TMC) বহুদিন যাবত দারুচিনি এর নিরাময় করার উপযোগিতার জন্য উঁচুদরের মান্যতা পেয়ে আসছে। পরম্পতাগত পশ্চিমী ঔষধ পদ্ধতিও এই মশলাকে উচ্চস্তরের মান্যতা দেয়। সাম্প্রতিক বৈজ্ঞানিক গবেষণাগুলি অনুযায়ী, লবঙ্গের পরেই দারুচিনি হল সর্বোত্তম অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। এটা জানতে পেরে আপনাকে আগ্রহী করে তুলতে পারে যে এই মশলার একটা দীর্ঘ এবং সমৃদ্ধ ইতিহাস রয়েছে। দারুচিনির প্রাচীনতম ব্যবহার প্রায় 2000-2500 BC আগেকার সময়ের। ইহুদী (Jewish) বাইবেলে দারুচিনি একটা প্রলেপ লাগাবার মাধ্যম হিসাবে উল্লিখিত আছে এবং এটা মিশরীয়দের (Egyptians) দ্বারা তাঁদের শবদেহকে মমিতে পরিণত করার কাজেও ব্যবহৃত হ’ত। রোমে, শবদেহের দুর্গন্ধ দূর করার জন্য অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানে দারুচিনি থাকতো। বস্তুত:, রোমে এই মশলা এতোটা উচ্চ মূল্যবান ছিল যে এটা শুধু ধনী ব্যক্তিদের একটা পণ্য হিসাবে থাকতো।    

আপনি কি জানতেন?

কিছু ইতিহাসবিদের মতে, ভাস্কো ডা গামা এবং ক্রিস্টোফার কলম্বাস মশলাপাতি এবং ভেষজ ঔষধি, বিশেষত: দারুচিনির সন্ধানে মূলত: তাঁদের সমুদ্রযাত্রা শুরু করেছিলেন। এটা সত্যি, শ্রীলঙ্কার দেশজ দারুচিনি আদিতে পর্তুগিজদের দ্বারা আবিষ্কৃত হয়েছিল এবং আজ পর্যন্ত তা অত্যন্ত মূল্যবান রয়েছে। তাসত্ত্বেও, সারা বিশ্ব জুড়ে শেফ এবং বেকারদের (রুটি/কেক প্রস্তুতকারী) কাছে এটা অন্যতম শীর্ষস্থানীয় প্রিয় মশলা। দারুচিনি গাছের ভিতরের বাকল (ছাল) থেকে দারুচিনি পাওয়া যায়। এটা একটা চিরহরিৎ গাছ (দীর্ঘ সময় বাঁচে) যা বিশ্বের গ্রীষ্মপ্রধান অঞ্চলগুলিতে প্রধানত: দেখতে পাওয়া যায়। দারুচিনি গাছ 18 m উচ্চতা পর্যন্ত বাড়তে পারে কিন্তু চাষ করে জাত গাছগুলি 2-3 m থেকে যেকোন উচ্চতায় বাড়তে পারে। এর সমান্তরাল শিরাসহ সুস্পষ্ট শক্ত পাতা আছে যা উভয় প্রান্তে যুক্ত থাকে (বে লিভস বা তেজপাতার মত) । দারুচিনির ফুলগুলি অপূর্ব সুন্দর হলুদ গুচ্ছরূপে জন্মায় এবং দারুচিনি ফল হচ্ছে এক ধরণের জাম (berry) যা পাকলে কালো হয়ে যায়।      

দারুচিনির ব্যাপারে কয়েকটা মূল তথ্য:

  • উদ্ভিদবিজ্ঞানসম্মত নামসিনামোমাম ভেরাম/সিনামোমাম জাইলেনিকাম
  • জাতি: লরেসিয়াই
  • প্রচলিত নাম: সিনামন,ডালচিনি
  • সংস্কৃত নামদারুসীতা
  • ব্যবহৃত অংশ: বাকল (ছাল)
  • দেশীয় অঞ্চল এবং ভৌগোলিক বিস্তৃতি: দারুচিনি দক্ষিণ এশিয়ার দেশজ কিন্তু এটা পৃথিবীর অধিকাংশ গ্রীষ্মপ্রধান অঞ্চলে চালু আছে। আসল দারুচিনির বেশিরভাগ শ্রীলঙ্কা, মালাগাসি রিপাবলিক এবং সেশেলস দ্বীপে পাওয়া যায়। ভারতে, কেরালায় আসল দারুচিনি চাষ করা হয়।  
  • শক্তিসমূহ: উষ্ণ। বাত এবং কফদোষগুলি প্রশমিত করে কিন্তু পিত্ত দোষ বাড়ায়। 
  1. দারুচিনির প্রকারভেদ - Types of Cinnamon in Bengali
  2. দারুচিনির স্বাস্থ্য উপযোগিতা - Health benefits of Cinnamon in Bengali
  3. দারুচিনি ব্যাবহারের পদ্ধতি - How to use cinnamon in Bengali
  4. দারুচিনির নিরাপদ মাত্রা - Safe dosage of cinnamon in Bengali
  5. দারুচিনির পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া - Cinnamon side effects in Bengali

দারুচিনির প্রকারভেদঃ দারুচিনির বেশ কিছু সংখ্যক বৈচিত্র্য রয়েছে কিন্তু দুটো সর্বাধিক পরিচিত ধরণ হলঃ সিলোন দারুচিনিঃ আসল দারুচিনি হিসাবেও পরিচিত। এটা শ্রীলঙ্কায় প্রচুর পরিমাণে চাষ করা হয় এবং অত্যন্ত মূল্যবান। এটার একটা মিষ্টি স্বাদ এবং মৃদু সুগন্ধ আছে। সিলোন দারুচিনি কাগজের পাতলা পরতে পরস্পরের সাথে ডগায় মোড়া একটা ফাঁপা নল গঠন করে এবং অনেক হালকা রঙের দেখতে হয়। ক্যাসিয়া দারুচিনিঃ এর উৎসমূলের জন্য চীনা দারুচিনি হিসাবেও পরিচিত। এটা সর্বাধিক প্রচলিতভাবে ব্যবহৃত দারুচিনির ধরণ। ক্যাসিয়া দারুচিনির রং গাঢ় বাদামী এবং একটা তীব্র সুগন্ধ এবং মশলাদার স্বাদ আছে। এই ধরণের দারুচিনির কাঠিগুলি একদিক অথবা উভয়দিক থেকে মাঝখানে একটা একক পুরু পাতের রোলিং গঠন করে। সিলোন দারুচিনির চেয়ে এতে কুমারিন উপাদান অনেক বেশি পরিমাণ থেকে এবং এজন্য লিভারের পক্ষে উচ্চতর শোষণে বিষাক্ত হয়।    

ট্র্যাডিশনাল চাইনিজ মেডিসিন, পশ্চিমী পরম্পরাগত ভেষজ ঔষধিবিজ্ঞান, এবং আয়ুর্বেদে দারুচিনি হচ্ছে সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ মশলাপাতিগুলির অন্যতম। কিন্তু আধুনিক চিকিৎসাবিজ্ঞান এর বহু স্বাস্থ্য গঠন এবং নিরাময় উপযোগিতা আবিষ্কারে এখনও পিছিয়ে আছে। এই রহস্যময় মশলার সম্বন্ধে আমরা যা জানি চলুন অনুসন্ধান করা যাক।

  • পেটের সমস্যাগুলি উপশম করে: বেশির ভাগ পেটের সমস্যাগুলি নিয়ন্ত্রণ করতে দারুচিনি আপনাকে সাহায্য করে। পেট ফাঁপা, কোষ্ঠবদ্ধতা, এবং বমি বমি ভাব উপশম করার জন্য এটা ব্যবহৃত হয়। দারুচিনি পাকস্থলীর আলসার (ক্ষত) প্রতিরোধ করতে এবং ক্ষুধা বৃদ্ধি করতেও সহায়ক।
  • ডায়াবেটিস-প্রতিরোধী: দারুচিনি সক্রিয় যৌগগুলিতে সমৃদ্ধ, যেগুলি ইনসুলিন সংবেদনশীলতা বাড়ায় এবং এভাবে রক্তের শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে বলে বিভিন্ন ক্লিনিক্যাল গবেষণায় ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। 
  • ওজন কমানো উন্নত করে: এটা বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে যে দারুচিনিতে উপস্থিত সিনাম্যাল্ডিহাইড শরীরে চর্বি দহন করা উন্নত করে ওজন কমানোয় সাহায্য করে। দারুচিনি ক্ষুধার জ্বালা এবং পানভোজনও কমায়।
  • হৃদযন্ত্রের পক্ষে ভাল: দারুচিনি কোলেস্টেরল মাত্রা কমায় এবং ধমনীগুলিতে রক্ত জমাট বাধা গড়ে ওঠা প্রতিরোধ করে হার্টের অসুখগুলির বিপদ কমায়।
  • রজ:স্রাব-সংক্রান্ত (মাসিক) সমস্যাগুলি উপশম করে: ক্লিনিক্যাল গবেষণাগুলিতে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে যে দারুচিনির ব্যবহার শুধুমাত্র রজ:স্রাবকালীন খিঁচুনি এবং ব্যথা কমায় তাই নয়, মাসিকের সময় বমি বমিভাব প্রতিরোধ করতেও এটা সহায়ক।
  • ব্রণ কমায়: দারুচিনি হচ্ছে একটা স্বাভাবিক প্রদাহরোধী এবং অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। যখন কোনও মুখের লেপের সঙ্গে মিশ্রিত করা হয়, এটা ব্রণের যন্ত্রণা এবং ফোলা কমাতে সাহায্য করে এবং ব্রণের ক্ষতচিহ্নও প্রতিরোধ করে।   
  • মৌখিক স্বাস্থ্য উন্নত করে:  দাঁতের ব্যথা উপশম করার জন্য লবঙ্গের সাথে দারুচিনির তেল পরম্পরাগতভাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। গবেষণাগুলি নির্দেশ করে যে দারুচিনি মাড়ির প্রদাহের উপসর্গসমূহ প্রতিরোধ করতে এবং উপশম করতে কিছু বাণিজ্যিক ঔষধের মত একই রকমের কার্যকর। 
  1. পেট খারাপের জন্য দারুচিনি - Cinnamon for stomach upset in Bengali
  2. ডায়াবেটিস-এর জন্য দারুচিনি - Cinnamon for diabetes in Bengali
  3. ওজন কমানোর জন্য দারুচিনি গুঁড়ো - Cinnamon powder for weight loss in Bengali
  4. জীবাণুপ্রতিরোধী শক্তি হিসাবে দারুচিনি - Cinnamon as antibacterial agent in Bengali

পেট খারাপের জন্য দারুচিনি - Cinnamon for stomach upset in Bengali

গ্যাস্ট্রিক বা পাকস্থলী-সংক্রান্ত সমস্যার জন্য দারুচিনি শীর্ষস্থানীয় প্রতিষেধক হয়তো নয় কিন্তু পাকস্থলীর স্বাস্থ্য এবং সুস্থতার জন্য ব্যবহৃত হওয়ার এটার একটা ইতিহাস রয়েছে। ঐতিহ্যগত পশ্চিমী ভেষজ ঔষধবিদ্যা দারুচিনিকে একটা বায়ুনাশক এবং একটা ক্ষুধাবর্ধক (হজমকারক) বলে। কোনও বায়ুনাশক হল একটা ভেষজ যা বায়ুর প্রকোপের (পেট ফাঁপা) মোকাবিলা করে এবং কোনও ক্ষুধাবর্ধক খাবার সহজে হজম করানোর মাধ্যমে ক্ষুধা বাড়ায়। এছাড়া, দারুচিনিতে বিদ্যমান ক্যাটেচিনস বমি বমিভাব দূর করতে সহায়ক বলে পরিচিত। বমি বমিভাবের উপসর্গগুলি উপশম করার জন্য, দারুচিনি সর্বাধিক প্রচলিতভাবে চা রূপে ব্যবহৃত হয়। নেচারোপ্যাথি বা প্রাকৃতিক উপায়ে রোগের চিকিৎসায় দারুচিনি একটা জোলাপ হিসাবে (কোষ্ঠবদ্ধতা উপশম করে) ব্যবহৃত হয়। আয়ুর্বেদে, পেটের খিঁচুনি, উদরাময় এবং কোলাইটিস-এর (মলাশয়ের প্রদাহ) চিকিৎসার জন্য দারুচিনি ব্যবহৃত হয়। গবেষণাগার-ভিত্তিক সমীক্ষাগুলি অজীর্ণ (বদহজম) রোগের চিকিৎসায় দারুচিনির কার্যকারিতার বিষয়ে নির্দেশ করে। এছাড়াও গবেষণাগুলি দাবি করে যে দারুচিনির দই সর্বাধিক দৃষ্ট আলসার বা ক্ষত-কারক জীবাণু হেলিকোব্যাক্টার পাইলোরি-র মোকাবিলায় উপযোগী। যাই হোক, এই মশলার সমস্ত ধরণের পরম্পরাগত ব্যবহারসমূহ নিশ্চিত করার জন্য আরও বেশি গবেষণা এখনও প্রয়োজন। সুতরাং, আপনার ডাক্তারের সাথে কথা বলা সবচেয়ে ভাল।          

ডায়াবেটিস-এর জন্য দারুচিনি - Cinnamon for diabetes in Bengali

গবেষণাগুলি নির্দেশ করে যে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস (প্রতিক্রিয়াশীল অক্সিজেন প্রজাতি এবং অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট প্রতিরোধগুলির মধ্যে ভারসাম্যের মধ্যে গোলমাল) হল ডায়াবেটিস-এর সূত্রপাতের একটা প্রধান অপরাধী। এবং এটা মনে করা হয় যে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস-এর বিরুদ্ধে সর্বোত্তম প্রতিরোধমূলক কৌশল হল অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টগুলির মত ফ্রি র‍্যাডিক্যালস যা রিঅ্যাক্টিভ অক্সিজেন স্পিশিস (প্রতিক্রিয়াশীল অক্সিজেন প্রজাতি) সাফ করে এবং ফ্রি র‍্যাডিক্যালস-এর বিপদগুলি নিষ্ক্রিয় করে। একটা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট হিসাবে, ডায়াবেটিস নিয়ে বেঁচে থাকা ব্যক্তিদের পক্ষে দারুচিনি একটা আশীর্বাদের চেয়ে কম নয়। বস্তুত:, একটা গবেষণা অনুযায়ী, লবঙ্গের ঠিক পরেই মশলা জগতে এটা (দারুচিনি) সমৃদ্ধতম উৎসগুলির অন্যতম। ডায়াবেটিস থাকা 500 ব্যক্তিদের মধ্যে একটা সমীক্ষা চালানো হয়েছিল, 4-18 সপ্তাহ সময়ে  প্রতিদিন তাঁদের 6g করে দারুচিনি দেওয়া হয়েছিল এবং এটা দেখা গিয়েছে যে দারুচিনির নিয়মিত ব্যবহার ফাস্টিং রক্ত শর্করার মাত্রা উল্লেখযোগ্যভাবে কমায়। অপর আর একটা সমীক্ষা, দাবি করে যে 5g দারুচিনির প্রয়োগ ইনসুলিন সংবেদনশীলতা বাড়ায় এবং এই হরমোনকে রক্ত থেকে আরও বেশি শর্করা তুলে নেবার কারণ ঘটায়। দারুচিনির হাইপোগ্লাইসেমিক (রক্তে শর্করা কমানো) প্রভাব মূল প্রয়োগের 12 ঘণ্টা পরে একই রকম কার্যকর হিসাবে লক্ষ্য করা গেছে। এছাড়াও, মেথিল হাইড্রক্সিক্যালকোন, একটা রাসায়নিক যৌগ, কার্যকরভাবে ইনসুলিন হরমোনকে অনুকরণ করে এবং শরীরে রক্ত শর্করার মাত্রা কমাতে সাহায্য করে।      

ওজন কমানোর জন্য দারুচিনি গুঁড়ো - Cinnamon powder for weight loss in Bengali

ওজন কমানোর জন্য দারুচিনি হচ্ছে সর্বাধিক লোকপ্রিয় পরম্পরাগত প্রতিষেধকগুলির অন্যতম। কিছুকাল আগেও, ওজন কমা এবং দারুচিনির মধ্যে একটা প্রত্যক্ষ সম্পর্ক স্থাপন করার মত যথেষ্ট বৈজ্ঞানিক প্রমাণ ছিল না। কিন্তু, মিশিগান ইন্সটিটিউট অব লাইফ সায়েন্সেস-এ একটা সাম্প্রতিক গবেষণা দাবি করে যে সিনাম্যাল্ডিহাইড, দারুচিনির একটা উপাদান, কার্যকরভাবে চর্বি দহন করে। এই গবেষণা অনুসারে, সিনাম্যাল্ডিহাইড শরীরে তাপ উৎপন্ন করে এবং অ্যাডিপোসাইটস (চর্বি কোষসমূহ) আরও বেশি পুড়িয়ে শক্তির উৎপন্ন করে। গবেষণাগার এবং প্রাণী-ভিত্তিক গবেষণা সংকেত দেয় যে দারুচিনি গ্রহণ করা হজম প্রক্রিয়াকে মন্থর করে এবং একটা দীর্ঘ সময় ধরে আপনাকে পেট ভরার অনুভব করায়। অতএব, ওজন কমানোর কর্মসূচীর সঙ্গে দারুচিনি যোগ করলে তার উপযোগিতা থাকতে পারে। যাই হোক, দারুচিনি ব্যবহারের আগে আপনার ডাক্তারের সাথে কথা বলা এবং এছাড়াও সঠিক মাত্রা যা নিতে হবে জেনে নেওয়া সবচেয়ে ভাল কারণ প্রয়োজনীয় মাত্রার বেশি দারুচিনি লিভারে বিষাক্ততা সৃষ্টি করতে পারে।       

(আরও পড়ুন: ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট

জীবাণুপ্রতিরোধী শক্তি হিসাবে দারুচিনি - Cinnamon as antibacterial agent in Bengali

দারুচিনির রোগজীবাণুপ্রতিরোধী প্রভাব পরীক্ষা করার জন্য অসংখ্য গবেষণা চালানো হয়েছে এবং এটা দাবি করা হয়েছে যে দারুচিনি হচ্ছে একটা কার্যকর রোগজীবাণুপ্রতিরোধী শক্তি। গবেষণা নির্দেশ করে যে সিনাম্যাল্ডিহাইড, দারুচিনিতে বিদ্যমান একটা গুরুত্বপূর্ণ যৌগ, সমস্ত রকমের জীবাণু, ছত্রাক, কেঁচোকৃমি (নেমাটোডস) ধ্বংস করায় অত্যন্ত শক্তিশালী। এটাকে নিকী (উকুনের ডিম) এবং প্রাপ্তবয়স্ক মাথার উকুনগুলির (পেডিকুলাস হিউমেনাস ক্যাপাইটিস) বিরুদ্ধে কার্যকর বলেও মনে করা হয়। তাছাড়াও সাধারণ রোগজীবাণুমূলক সংক্রমণ চিকিৎসায় দারুচিনির সঠিক ক্রিয়া প্রণালী এবং ব্যবহার বোঝার জন্য বিস্তৃত সমীক্ষা চালানো হচ্ছে।      

দারুচিনি কাঠিরূপে সর্বাধিক প্রচলিতভাবে ব্যবহৃত হয় যেগুলি বাণিজ্যিকভাবে দারুচিনি “কুইলস” (ফাঁপা নল) হিসাবে পরিচিত। দারুচিনি কুইলগুলি দারুচিনি গাছের ভিতরের বাকলের থেকে বার করা পাতলা টুকরো যা একটা অন্যটার উপরে মোড়া একটা ফাঁপা নল তৈরি করে। এই ফাঁপা নল তারপর শুকনো দারুচিনির ক্ষুদ্র পাতলা টুকরো দিয়ে ভরা হয়। দারুচিনি ছালের ক্ষুদ্রতর পাতলা টুকরোগুলো আলাদাভাবে “কুইলিংস” (মোড়া পাতলা টুকরো) হিসাবে বিক্রি হয়। দারুচিনির চিপস, গুঁড়ো এবং দারুচিনি ছালের তেলও বাজারে পাওয়া যায়।  

একটা সুস্বাদু মশলা হিসাবে দারুচিনি মিষ্টান্ন এবং মিষ্টির দোকানগুলিতে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। আমি নিশ্চিত আপনাদের মধ্যে কয়েকজন হয়তো বিখ্যাত “দারুচিনি রোল” খেয়ে থাকবেন যা ইউরোপ এবং আমেরিকার দেশজ একটা মিষ্টি খাদ্যের পদ কিন্তু পৃথিবীর সমস্ত প্রান্তে উপভোগ করা হয়। ইতিহাসবিদগণের মতে, ইউরোপের কয়েকটি অঞ্চলে দারুচিনিকে একটা কামোদ্দীপক খাবার হিসাবে বিবেচনা করা হত। দারুচিনির মিষ্টি সুগন্ধ পারফিউম (সুগন্ধি দ্রব্য) তৈরি করার জন্য প্রসাধনী শিল্পে এখনও ব্যবহৃত হয়। দারুচিনি গন্ধসার তেলের (এসেনশিয়াল অয়েল) ব্যবহারও অত্যন্ত প্রচলিত।

যাই হোক, যদি আপনি বাড়িতে আপনার নিজস্ব প্রতিষেধক তৈরি করতে চান, দারুচিনি মিশ্রিত তেল, কম্প্রেস (একটা স্থানীয় প্রস্তুতি) , টিংচার (অ্যালকোহলে নির্যাস) তৈরি করায় ব্যবহৃত হতে পারে অথবা চা রূপে (সাধারণত: দারুচিনি গুঁড়ো দিয়ে) তৈরি করা যেতে পারে। এখনও, রান্নাঘরের কোন বাক্সতে দারুচিনি রয়েছে জানেন না? আপনি যদি এখনও কোনও দারুচিনি কাঠি না দেখে থাকেন আপনি এর সুস্পষ্ট ক্রিসমাসের মত সুগন্ধ থেকে হয়তো চিনতে পারেন। বস্তুত:, একটা মানুষ-ভিত্তিক সমীক্ষা দাবি করে যে দারুচিনি শীতকালের সাথে এবং ক্রিসমাস ঋতুর সাথে প্রায়ই সম্পর্কিত থাকে। এবং কেন নয়। এটা ক্রিসমাস কেক, কুকিজ এবং ক্রিসমাস গাছ সজ্জায় ব্যবহৃত প্রধান মশলাগুলির অন্যতম।  

দারুচিনি চায়ের একটা মুখরোচক পানীয়ের কাপ প্রস্তুত করার একটা সহজ প্রণালী এখানে দেওয়া হল:

  • একটা কেটলিতে জল ফোটান।
  • ফুটন্ত জলে দারুচিনির একটা কাঠি দিন এবং প্রায় 15-20 মিনিট এটাকে ঢিমে আঁচে গরম হতে দিন।
  • বার্নারের সুইচ বন্ধ করুন এবং দারুচিনিকে 15 মিনিট ধরে ভিজতে দিন।
  • ছাঁকুন এবং পান করুন।

আদর্শগতভাবে, সিলোন (শ্রীলঙ্কাজাত) দারুচিনির একটা কাঠি 1-2 কাপ চা তৈরি করে। 

আদর্শগতভাবে, ½-1 চা-চামচ দারুচিনি একটা নির্দিষ্ট মেয়াদ পর্যন্ত খুব বেশি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ছাড়াই নেওয়া যেতে পারে। কিন্তু দারুচিনিতে কুমারিন আছে যা লিভারের পক্ষে ক্ষতিকারক হতে পারে, অতএব, মিত ব্যবহার জরুরি। আপনার শরীরের ধরণের পক্ষে দারুচিনির আদর্শ মাত্রা নির্ণয় করার জন্য আপনার আয়ুর্বেদ ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা সবচেয়ে ভাল। 

  1. দারুচিনির একটা স্বাভাবিক উষ্ণতাদায়ক প্রভাব রয়েছে সেজন্য প্রয়োজনীয় মাত্রার চেয়ে দারুচিনি বেশি গ্রহণ করা পাকস্থলীতে জ্বলুনি সৃষ্টি করতে পারে।
  2. দারুচিনির কুমারিন নামে একটা উপাদান আছে যা, বেশি মাত্রায় নিলে, লিভারের ক্ষতি করতে পারে।
  3. কিছু ব্যক্তি জন্মগতভাবে দারুচিনির প্রতি প্রতিক্রিয়াপ্রবণ (অ্যালার্জিক) । সমীক্ষাগুলি দেখায় যে সিনাম্যাল্ডিহাইড হচ্ছে দারুচিনিতে বিদ্যমান অ্যালার্জেন (অ্যালার্জি কারক শক্তি) এবং এটা শারীরিকভাবে প্রবণ ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে মুখে ক্ষত সৃষ্টি করে বলে বিদিত।  
  4. দারুচিনি হচ্ছে একটা স্বাভাবিক হাইপোগ্লাইসেমিক শক্তি (রক্ত শর্করা কমানো) , সুতরাং যদি আপনার ডায়াবেটিস থাকে এবং আপনি ডায়াবেটিস-প্রতিরোধী ঔষধ নেন, আপনার খাদ্যতালিকায় দারুচিনি নেবার আগে আপনার ডাক্তারকে জিজ্ঞাসা করা বাঞ্ছনীয়।
  5. দারুচিনি একটা রক্ত তরলকারী, সেজন্য যদি আপনি কোনও অস্ত্রোপচার করাতে যাচ্ছেন অথবা সম্প্রতি কোনও অস্ত্রোপচার করিয়েছেন, সেক্ষেত্রে কিছুদিনের জন্য দারুচিনি ব্যবহার না করা বাঞ্ছনীয়।
  6. অমিশ্রিত দারুচিনি তেল হল একটা পরিচিত ত্বক জ্বলনকারী। সেজন্য সমস্ত শরীরে এটা লাগাবার আগে আপনাকে একটা প্যাচ টেস্ট করাতে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। 
और पढ़ें ...

References

  1. Rafie Hamidpour, Mohsen Hamidpour, Soheila Hamidpour, Mina Shahlaria. Cinnamon from the selection of traditional applications to its novel effects on the inhibition of angiogenesis in cancer cells and prevention of Alzheimer's disease, and a series of functions such as antioxidant, anticholesterol, antidiabetes, antibacteri. J Tradit Complement Med. 2015 Apr; 5(2): 66–70. J Tradit Complement Med. 2015 Apr; 5(2): 66–70.
  2. Shan B, Cai YZ, Sun M, Corke H. Antioxidant capacity of 26 spice extracts and characterization of their phenolic constituents.. J Agric Food Chem. 2005 Oct 5;53(20):7749-59. PMID: 16190627
  3. Robert W. Allen et al. Cinnamon Use in Type 2 Diabetes: An Updated Systematic Review and Meta-Analysis. Ann Fam Med. 2013 Sep; 11(5): 452–459. PMID: 24019277
  4. Ferdinando Giacco and Michael Brownlee. Oxidative stress and diabetic complications. Circ Res. 2010 Oct 29; 107(9): 1058–1070. PMID: 21030723
  5. Fatmah A Matough, Siti B Budin, Zariyantey A Hamid, Nasar Alwahaibi, Jamaludin Mohamed. The Role of Oxidative Stress and Antioxidants in Diabetic Complications. Sultan Qaboos Univ Med J. 2012 Feb; 12(1): 5–18. PMID: 22375253
  6. Jarvill-Taylor KJ1, Anderson RA, Graves DJ. A hydroxychalcone derived from cinnamon functions as a mimetic for insulin in 3T3-L1 adipocytes.. J Am Coll Nutr. 2001 Aug;20(4):327-36. PMID: 11506060
  7. Solomon TP1, Blannin AK. Effects of short-term cinnamon ingestion on in vivo glucose tolerance.. Diabetes Obes Metab. 2007 Nov;9(6):895-901. PMID: 17924872
  8. Adisakwattana S, Lerdsuwankij O, Poputtachai U, Minipun A, Suparpprom C. Inhibitory activity of cinnamon bark species and their combination effect with acarbose against intestinal α-glucosidase and pancreatic α-amylase.. Plant Foods Hum Nutr. 2011 Jun;66(2):143-8. PMID: 21538147
  9. Mohamed Sham Shihabudeen H, Hansi Priscilla D, Thirumurugan K. Cinnamon extract inhibits α-glucosidase activity and dampens postprandial glucose excursion in diabetic rats. Nutr Metab (Lond). 2011 Jun 29;8(1):46. PMID: 21711570
  10. Nidhi Goel, Hina Rohilla, Gajender Singh, Parul Punia. Antifungal Activity of Cinnamon Oil and Olive Oil against Candida Spp. Isolated from Blood Stream Infections. J Clin Diagn Res. 2016 Aug; 10(8): DC09–DC11. PMID: 27656437
  11. Health Harvard Publishing. Harvard Medical School [Internet]. Inflammation: A unifying theory of disease. Harvard University, Cambridge, Massachusetts.
  12. Gunawardena D et al. Anti-inflammatory activity of cinnamon (C. zeylanicum and C. cassia) extracts - identification of E-cinnamaldehyde and o-methoxy cinnamaldehyde as the most potent bioactive compounds. Food Funct. 2015 Mar;6(3):910-9. PMID: 25629927
  13. Liao JC et al. Anti-Inflammatory Activities of Cinnamomum cassia Constituents In Vitro and In Vivo. Evid Based Complement Alternat Med. 2012;2012:429320. PMID: 22536283
  14. Seyed Fazel Nabavi et al . Antibacterial Effects of Cinnamon: From Farm to Food, Cosmetic and Pharmaceutical Industries. Nutrients. 2015 Sep; 7(9): 7729–7748. PMID: 26378575
  15. Lowenthal J, Birnbaum H. Vitamin K and coumarin anticoagulants: dependence of anticoagulant effect on inhibition of vitamin K transport.. Science. 1969 Apr 11;164(3876):181-3. PMID: 5774189
  16. O'Reilly RA1, Aggeler PM. Studies on coumarin anticoagulant drugs. Initiation of warfarin therapy without a loading dose. Circulation. 1968 Jul;38(1):169-77. PMID: 11712286
  17. O'Reilly RA1, Aggeler PM. Studies on coumarin anticoagulant drugs. Initiation of warfarin therapy without a loading dose. Circulation. 1968 Jul;38(1):169-77. PMID: 11712286
  18. Molouk Jaafarpour, Masoud Hatefi, Fatemeh Najafi, Javaher Khajavikhan, Ali Khani. The Effect of Cinnamon on Menstrual Bleeding and Systemic Symptoms With Primary Dysmenorrhea. Iran Red Crescent Med J. 2015 Apr; 17(4): e27032. PMID: 26023350
  19. Pallavi Kawatra, Rathai Rajagopalan. Cinnamon: Mystic powers of a minute ingredient. Pharmacognosy Res. 2015 Jun; 7(Suppl 1): S1–S6. PMID: 26109781